সংবাদপত্রে বিজ্ঞাপন দিয়ে ক্ষমা চাইলেন জুকারবার্গ

32
শেয়ার

ফেসবুকে তথ্য ফাঁস কাণ্ডে এ বার সাতটি ব্রিটিশ ও তিনটি আমেরিকান সংবাদপত্রে বিজ্ঞাপন দিয়ে সকলের কাছে ক্ষমা চাইলেন ফেসবুকের সিইও মার্ক জুকারবার্গ ৷ রবিবার এই বিজ্ঞাপনটি প্রকাশিত হয়েছে সানডে মিরর, দ্য অবসার্ভ, দ্য সানডে টাইণস, মেইল অন সানডে, সানডে এক্সপ্রেস, সানডে টেলিগ্রাফ, সিএনএন, দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমসের মতো একাধিক কাগজে ৷ বিজ্ঞাপনে জুকারবার্গ লিখেছেন, তিনি সকলের কাছে ক্ষমাপ্রার্থী ৷ সকলের ব্যক্তিগত তথ্য রক্ষা করা ফেসবুকের কর্তব্য ৷ যদি আমরা তা না পারি, তা হলে আমরা কোনও কিছু পাওয়ার যোগ্য নই ৷

বিজ্ঞাপনে জুকারবার্গ জানিয়েছেন, ফেসবুক ইতিমধ্যেই বেশি তথ্য সংগ্রহের থার্ড পার্টি অ্যাপগুলি বন্ধ করে দিয়েছে ৷ সব কিছু ঠিক রাখার চেষ্টা চলছে ৷ পরে এই ধরণের ঘটনা ঘটলে কড়া পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলেও জানান জুকারবার্গ৷

ফেসবুকে তথ্য ফাঁস নিয়ে গত কয়েকদিন থেকেই উত্তাল গোটা বিশ্ব ৷ #DeleteFacebook হ্যাশট্যাগ নিয়ে রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছিল সোশ্যাল নেটওয়ার্কে ৷ হোয়াটসঅ্যাপের প্রতিষ্ঠাতা বিরেইন অ্যাক্টনের এক ট্যুইট থেকেই ফেসবুকে তথ্য ফাঁস নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল ৷ সেই সময় জুকেরবার্গ ফেসবুকে জানান, ‘ফেসবুকের ভুল থাকতে পারে ৷ কারও উপর দায় চাপাবে না ফেসবুক ৷ তথ্য ফাঁস রুখতে নতুন পদক্ষেপ নেওয়া হবে ৷’ তবে সে সময় এভাবে ক্ষমা চাইতে দেখা যায়নি ফেসবুকের সিইওকে ৷

সম্প্রতি ফেসবুক নিয়ে একটি সমীক্ষা প্রকাশ্যে আসে ৷ কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা নামে একটি সংস্থা সোশ্যাল নেটওয়ার্ক থেকে সাধারণ মানুষের ব্যক্তিগত তথ্যের অপব্যবহার করছে ৷ গত কয়েকদিন ধরেই একাধিক নিউজ চ্যানেলের স্টিং অপারেশনে উঠে এসেছে এই তথ্য ৷ প্রায় ৫০ মিলিয়ন মানুষের তথ্য নিয়ে নয়ছয় করেছে ওই সংস্থাটি ৷ কটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা রিসার্চের প্রধান ক্রিস্টোফার উইলি সম্পূর্ণ বিষয়টি ফাঁস করেন ৷

মন্তব্য করুন

comments