৭৯ দিন পর চালু হলো বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর

করোনাভাইরাসের কারণে দীর্ঘ ৭৯ দিন বন্ধ থাকার পর প্রশাসনের বিশেষ ১২টি শর্তে আজ থেকে পুনরায় চালু হলো পঞ্চগড়ের বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর। 

আজ শনিবার সকাল সাড়ে ৮টায় চালু হওয়ার কথা থাকলেও বৃষ্টির কারণে বিলম্বিত হয়ে বেলা সাড়ে ১১টায়  ভারত থেকে পাথর বোঝাই ট্রাক বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর প্রবেশের মধ্যে দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয় স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম।

এদিকে সকাল থেকে জিরো পয়েন্টে নেপাল, ভুটান ও ভারতের ট্রাক বাংলাদেশের অভ্যন্তরে প্রবেশের পর পরই স্বাস্থ্যকর্মীরা হ্যান্ড থার্মাল স্ক্যানার দিয়ে ট্রাক চালকদের শরীরের তাপমাত্রা মাপা হয় এবং প্রতিটি ট্রাকে জীবাণুনাশক স্প্রে করার পর বন্দরে প্রবেশ করতে দেয়া হয়।

জানা যায়, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে গত ২৪ মার্চ থেকে দেশের বিভিন্ন স্থলবন্দর দিয়ে সকল প্রকার পণ্য আমদানি বন্ধ করে সরকার। তবে গত কয়েক দিন ধরে স্বাস্থ্য বিধি মেনে পুনরায় দেশের স্থলবন্দরগুলো চালু করা হলেও করোনার প্রকোপ রোধে আপাতত বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর বন্ধ ও পর্যবেক্ষণে রাখার সিদ্ধান্ত নেয় জেলা প্রশাসন। 

এরপর গত ১০ জুন জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিনসহ জেলার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধিরা বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর পরিদর্শন করে এক জরুরি বৈঠকের মাধ্যমে স্বাস্থ্য বিধি মেনে বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর দিয়ে ভারত, নেপাল ও ভুটানের সঙ্গে পুনরায় পাথরসহ সকল প্রকার পণ্য আমদানি-রপ্তানি চালুর বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়।

ব্যবসায়ীরা জানান, বন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি চালু হওয়ার ফলে ব্যবসা বাণিজ্যে প্রসার বাড়বে। একই সঙ্গে সরকারের রাজস্ব বৃদ্ধি পাবে। পাশাপাশি তারা তাদের ব্যবসার ক্ষতি পুষিয়ে নিতে পারবেন। অন্যদিকে দীর্ঘদিন পর স্থলবন্দর চালু হওয়ায় বন্দরের বেকার শ্রমিকরা এখন কাজে ব্যস্ত সময় পার করছেন।

পঞ্চগড় জেলা আমদানি ও রপ্তানিকারক অ্যাসোসিশনের সভাপতি মেহেদী হাসান খান বাবলা জানান, দীর্ঘ ৭৯ দিন পর আজ থেকে স্বাস্থ্য বিধি মেনে বন্দর দিয়ে আমদানি কার্যক্রম চালু হয়েছে। প্রতিদিন বন্দর দিয়ে ভারত, নেপাল ও ভুটানের ১০০টি ট্রাক ১২টি শর্তে প্রবেশ করবে।

মন্তব্য করুন

comments