সুশান্তের মৃত্যুঃ প্রাথমিক তদন্তে আত্মহত্যার আলামত পাওয়া গেছে

বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত সত্যি আত্মহত্যা করেছেন, নাকি তাকে হত্যা করা হয়েছে; আত্মহত্যা করে থাকলেও এর নেপথ্যে কী কারণ- সেসব প্রশ্নের জবাব হয়তো সময়ই বলে দেবে। তবে প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ এই ঘটনাকে আত্মহত্যা বলেই মনে করছে, যদিও কিছুটা রহস্যও তৈরি হয়েছে।

রোববার (১৪ জুন) মুম্বাইয়ের বান্দ্রাতে সুশান্ত’র বাড়ি থেকে তার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। একইদিন রাতে সুশান্তের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়। ময়নাতদন্তের প্রাথমিক রিপোর্টে আত্মহত্যার প্রমাণ পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো। 

ড. আরএন কুপার মিউনিসিপ্যাল হাসপাতালে ময়নাতদন্ত হয়েছে এ নায়কের। তবে তদন্তকারী চিকিৎসক জানিয়েছেন, সুশান্তের শরীরে কোনো ড্রাগ বা বিষ রয়েছে কিনা জেজে হাসপাতালে তা পরীক্ষা করা হবে।

পুলিশ জানিয়েছে, অভিনেতাকে দেহ তাঁর বাড়ি থেকে ঝুলন্ত অবস্থাতেই উদ্ধার করা হয়। তাঁর এক পরিচারক পুলিশকে খবর দিয়েছিলেন। তারপরই ঘটনাস্থলে ছুটে এসেছিল বান্দ্রা পুলিশের একটি তদন্তকারী দল। তাঁরা প্রাথমিক তদন্ত করেছেন। তবে তাঁর বাড়িতে কোনও সুইসাইড নোট পাওয়া যায়নি। মিলেছে কিছু মেডিকেল রিপোর্ট। সেগুলি কি বিষয়ক তা এখনই পুলিশ জানাতে চায়নি। এই বিষয়ে বিশদে তদন্ত চলছে। সুশান্ত সিং কী ধরনের ওষুধ খেতেন তা জানার চেষ্টা করছে পুলিশ।

এদিকে ঘটনা তদন্তের জন্য জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিশ৷ সুশান্তের সঙ্গে থাকতেন তিনজন, একজন ক্রিয়েটিভ ম্যানেজার, ম্যানেজার ও বাড়ির বাবুর্চি৷ এই তিনজনের বয়ান নিয়েছে পুলিশ৷ এছাড়া যে চিকিৎসকের কাছে সুশান্ত চিকিৎসা নিচ্ছিলেন তাকেও জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিশ৷

এদিকে সুশান্ত আত্মহত্যার করেনি বলে দাবি করেন তার মামা আর সি সিং। তিনি এ নিয়ে ভারতের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিবিআইয়ের তদন্তের দাবি তুলেছেন।

সোমবার (১৫ জুন) মুম্বাইতে সুশান্ত সিং রাজপুতের শেষকৃত্য সম্পন্ন হাওয়ার কথা রয়েছে।

মন্তব্য করুন

comments