যুক্তরাষ্ট্রে ৬৫ লাখ পিপিইর প্রথম চালান পাঠিয়েছে বেক্সিমকো

বাংলাদেশ বিশ্বমানের ব্যক্তিগত সুরক্ষা সামগ্রী পার্সোনাল প্রোটেক্টিভ ইকুইপমেন্ট (পিপিই) উৎপাদনকারী দেশের কাতারে যোগ দিল। সোমবার (২৫ মে) দেশের টেক্সটাইল খাতের নেতৃস্থানীয় ব্র্যান্ড বেক্সিমকো মার্কিন ব্র্যান্ড হেইনস-এর কাছে ৬৫ লাখ পিপিই গাউনের একটি চালান পাঠিয়েছে। এই চালান পৌঁছাবে মার্কিন কেন্দ্রীয় জরুরি ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের (ফেমা) কাছে।

ই মুহূর্তকে স্মরণীয় করে রাখতে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম ও বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল আর মিলার। তারা যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশে বেক্সিমকোর তৈরি করা পিপিইর ওই চালানকে বিদায় জানান। 

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে বেক্সিমকোর অবদানের প্রশংসা করেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম। তিনি বলেন, বাংলাদেশের মতো বাকি বিশ্বও মহামারির সঙ্গে লড়াইয়ে এক কঠিন সময় পার করছে। 

প্রতিমন্ত্রী বলেন, এমন এক সংকটময় সময়ে বাংলাদেশ মাত্র দুই মাসের মধ্যে এ মুহূর্তে স্বাস্থ্য খাতের জন্য সবচেয়ে প্রয়োজনীয় সামগ্রী বিশ্বের এক গুরুত্বপূর্ণ বাজারে রপ্তানি করছে। তাও আবার ১০/২০ হাজার নয় ৬৫ লাখ পিস। এ এক অভাবনীয় অর্জন।

এ সময় বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল আর মিলার বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে এই প্রথম বড় ধরনের পিপিইর চালান যাচ্ছে।

তিনি বলেন, বিশ্ববাজারের জন্য বাংলাদেশের বিপুল সংখ্যায় বৈশ্বিক মানের পিপিই উৎপাদনের পদক্ষেপকে স্বাগত জানায় যুক্তরাষ্ট্র। বেক্সিমকো ও হেইনস’র চুক্তিতে আরও স্পষ্ট হয়ে ওঠে মহান এ দেশ দু’টি কোভিড-১৯ মোকাবিলায় কীভাবে লড়াই করছে।

প্রসঙ্গত, যুক্তরাষ্ট্রে ভয়াবহ বিপর্যয় ডেকে এনেছে করোনাভাইরাস। দেশটিতে মৃতের সংখ্যা ১ লাখের কাছাকাছি। এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ১৬ লাখ ৬৬ হাজার ৮২৯ জন। সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ছেই। একইসঙ্গে দেশটিতে কর্তব্যরত স্বাস্থ্যকর্মীদের ব্যক্তিগত সুরক্ষাসামগ্রীরও সংকট দেখা দিয়েছে।

মন্তব্য করুন

comments