বিশ্বব্যাপী মৃত্যু ৪ লাখ ৭৪ হাজার, , আক্রান্ত ৯১ লাখ ছাড়িয়েছে

করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) মহামারিতে বিশ্বব্যাপী আক্রান্তের সংখ্যা ৯১ লাখ ছাড়িয়েছে। আর এ মহামারীতে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৪ লাখ ৭৪ হাজার।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যানুযায়ী, মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৪ লাখ ৭৪ হাজার ৩০৭ জনের এবং আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৯১ লাখ ৮৭ হাজার ২৫৮ জনে। ইতিমধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৪৯ লাখ ৩৭ হাজার ১৮১ জন।

বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে করোনায় মারা গেছেন ১ লাখ ২২ হাজার ৬১০ জন। আক্রান্ত হয়েছেন ২৩ লাখ ৮৮ হাজার ১৫৩ জন। আর সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১০ লাখ ২ হাজার ৯২৯ জন।

আর আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যায় দ্বিতীয় অবস্থানে উঠে এসেছে ব্রাজিল। দেশটিতে মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ১১ লাখ ১১ হাজার ৩৪৮ জন। এ পর্যন্ত মারা গেছে ৫১ হাজার ৪০৭ জন।

মৃতের সংখ্যায় ব্রাজিলের পরেই আছে যুক্তরাজ্য। দেশটিতে এখন পর্যন্ত এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে ৪২ হাজার ৬৪৭ জন। আক্রান্ত হয়েছে ৩ লাখ ০৫ হাজার ২৮৯ জন। 

আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় অবস্থানে আছে রাশিয়া। দেশটিতে আক্রান্ত ৫ লাখ ৯২ হাজার ২৮০ জন। যদিও রাশিয়ায় মৃতের সংখ্যা তুলনামূলকভাবে কম, ৮ হাজার ২০৬ জন।

করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে চতুর্থ অবস্থানে উঠে এসেছে ভারত। দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৪ লাখ ৪০ হাজার ৪৫০ জন, যাদের মধ্যে মারা গেছেন ১৪ হাজার ১৫ জন। 

ইউরোপের দেশ স্পেনে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৪৬ হাজার ৫০৪ জন, মারা গেছেন ২৮ হাজার ৩২৪ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৫০ হাজার ৩৭৬ জন। ইতালিতে আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৩৮ হাজার ৭২০ জন, মারা গেছেন ৩৪ হাজার ৬৫৭ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৮৩ হাজার ৪২৬ জন। ফ্রান্সে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৯৭ হাজার ৩৮১ জন, মারা গেছেন ২৯ হাজার ৬৬৬ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৭৪ হাজার ৭৩৬ জন। জার্মানিতে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৯১ হাজার ৭৬৮ জন, মারা গেছেন ৮ হাজার ৮৯৯ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৭৫ হাজার ১৪৩ জন।

মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ইরানে আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৭ হাজার ৫২৫ জন, মারা গেছেন ৯ হাজার ৭৪২ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৬৬ হাজার ৪২৭ জন। তুরস্কে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৮৮ হাজার ৮৯৭ জন, মারা গেছেন ৪ হাজার ৯৭৪ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৬১ হাজার ৫৩৩ জন।

ভাইরাসটির সংক্রমণস্থল চীনে আক্রান্ত হয়েছেন ৮৪ হাজার ৬২৪ জন, মারা গেছেন ৪ হাজার ৬৩৯ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৭৯ হাজার ৫৪৭ জন।

মন্তব্য করুন

comments