বিএনপি রাজনৈতিক আইসোলেশনে রয়েছে: ওবায়দুল কাদের

বিএনপি রাজনৈতিক আইসোলেশনে রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহনমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘যেকোনও দুর্যোগে নিরাপদ দূরত্বে অবস্থান করাই বিএনপির রাজনীতি। দায়িত্বশীল রাজনৈতিক দল হিসেবে দেশের জনগণ তাদেরকে কর্মহীন ও ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের ধারে-কাছেও দেখেনি। তারা রাজনৈতিক আইসোলেশনে ছিল এবং আছে।’

ওবায়দুল কাদের আজ বুধবার (২৭ মে) তাঁর সংসদ ভবনের সরকারি বাসভবন থেকে এক ভিডিও বার্তায় এসব কথা বলেন।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুলের বক্তব্যের সমালোচনা করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আন্দোলন সংগ্রামে ব্যর্থ হয়ে বিএনপি নেতারা সব সময় ঝাঁঝালো কিছু শব্দ ব্যবহার করে চাতুর্যের মাধ্যমে ফায়দা হাসিলের অপচেষ্টা করে। মির্জা ফখরুল সমন্বয়হীনতার কথা বলে কী বোঝাতে চেয়েছেন তা স্পষ্ট না করে বরাবরের মতো কথামালার চাতুরী দিয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত করতে চেয়েছেন।’

করোনা সংকটে সরকারের উদ‌্যোগ বিশ্বব‌্যাপী প্রশংসা পেলেও বিএনপির সমালোচনাকে ‘নেতিবাচতক রাজনীতি’ হিসেবে অভিহিত করে তিনি বলেন, ‘নিজেরা জনগণের পাশে দাঁড়াবে না, ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের খোঁজ-খবর নেবে না, অথচ মিডিয়া সরকারের সমালোচনা করবেন এটাই কি বিএনপির রাজনীতি। পবিত্র ঈদের দিনেও জনগণ তাদের মুখের বিষ থেকে রেহাই পাননি।’

দেশবাসীকে ধৈর্য্য ধারণের আহ্বান জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, কঠোরভাবে সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে হবে এবং মনে সাহস রাখতে হবে। দুর্যোগের এ অমানিশায় পাশে আছেন একজন শেখ হাসিনা, যিনি আলো হাতে আঁধারের কাণ্ডারি। তাই অন্ধকার সুড়ঙ্গ দেখে ভয় পাবার কোনো কারণ নেই। সুড়ঙ্গ শেষেই রয়েছে আশার আলো।

উল্লেখ্য, করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় সরকারের কর্মকাণ্ডে সমন্বয়হীনতা রয়েছে বলে গত সোমবার অভিযোগ করেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

মন্তব্য করুন

comments