পশ্চিমবঙ্গ উপকূলে আঘাত হেনেছে আম্পান, ক্ষতিগ্রস্ত বিদ্যুৎকেন্দ্র

শক্তি হারিয়ে সুপার সাইক্লোন থেকে অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হওয়া আম্পানের তাণ্ডব শুরু হয়েছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে। পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশ উপকূলের অতিক্রম শুরু করতে পরবর্তী চার ঘণ্টা সময় নেবে অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড়টি।

স্থলভাগে উঠে আসার প্রক্রিয়ার মধ্যে পশ্চিমবঙ্গের পশ্চিমবঙ্গের দীঘা ও সাগরদ্বীপে আছড়ে পড়তে শুরু করেছে। সেই সঙ্গে ভারত ও বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকাজুড়ে চলছে তুমুল বৃষ্টি।

ঘূর্ণিঝড়টি সাগরদ্বীপ থেকে সুন্দরবনের একটা অংশ হয়ে সমতলের দিকে খুলনা অভিমুখে উঠে আসবে। পশ্চিমবঙ্গ উপকূল থেকে মাত্র ৯০ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করলেও এই ঝড়ের তাণ্ডবে ইতোমধ্যে রাজ্যের বিভিন্ন স্থানে গাছপালা ও বিদ্যুতের খুঁটি ভেঙে পড়েছে।

বুধবার সকালে কিছুটা শক্তি হারিয়ে সুপার সাইক্লোন থেকে অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়েছে আম্পান।ইতিমধ্যে কলকাতায় শুরু হয়েছে আম্পানের দাপট। রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় তুমুল বৃষ্টি ও প্রবল বেগে ঝড়ো হাওয়া বইছে।

ভারতের আবহাওয়া অধিদফতর এক বুলেটিনে জানিয়েছে, বর্তমানে আম্পানের কেন্দ্রে বাতাসের সর্বোচ্চ গতিবেগ রয়েছে ১৬০ থেকে ১৭০ কিলোমিটার, যা ১৯০ পর্যন্ত বাড়ছে।

ঘূর্ণিঝড় আম্পানের ব্যাপক প্রভাব পড়েছে ভারতের উড়িষ্যায় উপকূলীয় এলাকায়। প্রচণ্ড ঝোড়ো বাতাস বইছে, সেই সঙ্গে হচ্ছে ভারী বর্ষণ। ঝড়ে উড়িষ্যায় বিদ্যুৎকেন্দ্র, স্থাপনা ও গাছপালার ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

প্রচণ্ড ঝড়ে গাছপালা ও বিদ্যুতের খুঁটি উপড়ে পড়েছে সেখানে। বন্ধ হয়ে গেছে যান চলাচল। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বিদ্যুৎ সরবরাহের অবকাঠামো।

মন্তব্য করুন

comments

আগের সংবাদদেশের সব মসজিদ পাচ্ছে ৫ হাজার টাকা করে
পরের সংবাদ১০ সপ্তাহ পর অনুশীলনে ফিরলেন রোনালদো