পদ্মাসেতুর সাড়ে ৪ কি.মি. দৃশ্যমান, বসলো ৩০তম স্প‌্যান

পদ্মা সেতুতে বসানো হলো ৩০ তম স্প্যান। শনিবার সকালে জাজিরা প্রান্তে ২৬ ও ২৭ নম্বর পিলারের ওপর বসানো হয় স্প্যানটি। এতে দৃশ্যমান হলো সেতুর সাড়ে চার কিলোমিটার।

এতে করে বাকি থাকলো আর মাত্র ১১টি স্প্যান। চলতি মাসের ছয় তারিখ ২৯ তম স্প্যান বসানো হয়েছিল। জুন মাসের ২০ তারিখের মধ্যে ৩১ তম স্প্যান বসানোর পরিকল্পনা রয়েছে।

পদ্মা সেতুতে বসানোর জন্য আরও পাঁচটি স্প্যান প্রস্তুত আছে। এর মধ্যে দুটিতে রং করার কাজ চলছে। মূল সেতুর কাজ এগিয়েছে ৮৬ দশমিক ৫০ শতাংশ।

সেতু কর্তৃপক্ষ জানায়, শুক্রবার মুন্সিগঞ্জের কুমারভোগ কন্সট্রাকশন ইয়ার্ড থেকে ৩০তম স্প্যানটি ভাসমান ক্রেনে জাজিরা প্রান্তে নেয়া হয়। এরপর ২৬ ও ২৭ নম্বর পিলার বরাবর রাখা হয়। শনিবার সকাল সোয়া সাতটা থেকে শুরু হয় স্প্যান বসানোর কাজ। সকাল ১০টায় স্প্যানটি বসানোর কাজ শেষ হয়।

সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান আব্দুল কাদের বলেন, আবহাওয়া বিবেচনায় নিয়ে এখনকার স্প্যানগুলো একদিন আগেই নিয়ে আসা হয়। পরের দিন সকালে পিলারের ওপর বসানো হয়। এতে ঝুঁকি কম থাকে। স্প্যানের পাশাপাশি সড়ক ও রেল পথের কাজও এগিয়ে চলছে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই কাজ শেষ করতে চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি।

৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের সেতুটি দ্বিতল হবে। যার ওপর দিয়ে সড়কপথ ও নিচের অংশে থাকবে রেলপথ। সেতুর এক পিলার থেকে আরেক পিলারের দূরত্ব প্রায় ১৫০ মিটার। ৪২টি পিলারের ওপর মোট ৪১টি স্প্যান জোড়া দেয়া সম্পন্ন হলে পদ্মা সেতু পূর্ণাঙ্গ রূপ পাবে।

জানা যায়, আগামী বছরের জুনে পদ্মাসেতুর কাজ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। করোনা ভাইরাসের কারণে কাজ বন্ধ হয়নি পদ্মাসেতুর। কিন্তু গতি কমেছে।

মন্তব্য করুন

comments