চট্টগ্রামে দেশের সবচেয়ে কম বয়সী করোনা রোগী শনাক্ত

চট্টগ্রামে এবার একদিন বয়সী শিশুর শরীরে শনাক্ত হয়েছে করোনা ভাইরাস। ওই শিশুর বয়স মাত্র পাঁচদিন। নমুনা সংগ্রহের সময় ওই শিশুর বয়স ছিল একদিন।

ওই নবজাতকের মা’ও আগে থেকে করোনা পজেটিভ ছিলেন। জন্মের পর পরই চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ল্যাবে ওই শিশুর শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হয়। তার তিন দিন পর বৃহস্পতিবার (২৮ মে) দেয়া রিপোর্টে শিশুটিকে পজেটিভ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

নবজাতক এবং তার মা দু’জনই বর্তমানে চট্টগ্রামের জেনারেল হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। দু’জনরই শারীরিক অবস্থা স্বাভাবিক রয়েছে।

চমেক সূত্র জানায়, ২৩ মে ওই নারীর করোনাভাইরাস শনাক্ত হয় এবং তখন তিনি চট্টগ্রাম মেডিকেলে চিকিৎসাধীন ছিলেন। করোনাভাইরাস নিশ্চিত হওয়ার পর তাকে ২৪ মে সকালে চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। ওইদিন দুপুরে সিজারিয়ান অপারেশনের মাধ্যমে তার সন্তান জন্ম হয়। পরদিন শিশুটির নমুনা সংগ্রহ করা হয়। নমুনা সংগ্রহের সময় শিশুটির বয়স ছিল একদিন। চারদিন পর বৃহস্পতিবার নমুনা পরীক্ষায় শিশুটির শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পাওয়া যায়।

আগে থেকে অন্তঃসত্ত্বা ওই নারী করোনা পজেটিভ থাকায় তার ডেলিভারির ক্ষেত্রে বিশেষ সতর্কতা নেয়া হয়েছিল। ২০ মে তার নমুনা পরীক্ষায় পজেটিভ রিপোর্ট আসার পর পরই তাকে আইসোলেশনে নেয়া হয়েছিল। তিনি তার বাসা থেকেই করোনার চিকিৎসা নিচ্ছিলেন।

এখন পর্যন্ত এই শিশুটিই সবচেয়ে কম বয়সী করোনা রোগী হিসেবে চিহ্নিত হয়ে আসছে। এর আগে চট্টগ্রামের চন্দনাইশের ১০ মাস বয়সী এক শিশু করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। অবশ্য পরবর্তীতে সুস্থ হয়ে শিশুটি বাড়ি ফিরে গিয়েছিল।

মন্তব্য করুন

comments