ঘূর্ণিঝড় আম্পানের প্রভাবে ১০ জনের মৃত্যু

সুপার সাইক্লোন আম্পানের প্রভাবে দেশের বিভিন্ন জেলায় ১০ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এছাড়া দেশের বিভিন্ন জেলায় প্রায় ৫৩ লাখ মানুষ বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েছে। বিদ্যুৎ না থাকায় দেশের উপকূলীয় অনেক এলাকাতেই মোবাইল নেটওয়ার্কও বন্ধ হয়ে গেছে।

বৃহস্পতিবার (২১ মে) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক ডা. আয়শা আক্তার ঘূর্ণিঝড় আম্পান এর আঘাতে আহত ও নিহতদের প্রতিবেদন দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছেন।

নিহতদের মধ্যে যাদের পরিচয় পাওয়া গেছে তারা হলেন, পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় স্বেচ্ছাসেবী সৈয়দ শাহ আলম (৪৫), গলাচিপার পানপট্টির রাশেদ (৫), ভোলার চরকচ্ছারিয়ার মো. সিদ্দিক, রোবরহানউদ্দিনের রফিকুল ইসলাম (৩৫), পিরোজপুর মঠবাড়িয়ার দাউদখালি উপজেলার শাহাজান মোল্লা (৫৫), চট্টগ্রামের সন্দ্বীপের ২ নং পৌরসভার সালাউদ্দিন (১৬)।

এছাড়াও সাতক্ষীরার কমলনগরের একজনসহ অজ্ঞাত চারজন নিহত হয়েছেন।

তারা সবাই নৌকা ও ট্রলার ডুবি, গাছ ও দেয়াল চাপা পড়ে এবং পানিতে ডুবে মারা গেছেন বলে জানিয়েছে অধিদপ্তর।

সুপার সাইক্লোন আম্পান শক্তি কিছুটা হারিয়ে অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় রূপে বুধবার দুপুরের পর ভারতের পশ্চিমবঙ্গ উপকূলে আঘাত হানে। পরে রাতে এ ঝড় প্রবেশ করে বাংলাদেশে।

ঝড়ের মধ্যে প্রবল বাতাসে বহু গাছপালা ভেঙে পড়ে, ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েন উপকূলের ১০ লাখ গ্রাহক।

মন্তব্য করুন

comments