এবার বাংলাতেও হবে হজের খুতবা

আরাফার ময়দানে প্রতি বছরের ৯ জ্বিলহজ সাধারণত আরবি ভাষায় পবিত্র হজের খুতবা দেয়া হয়। গত বছর ৫টি ভাষায় এই খুতবা অনুবাদ করা প্রচারিত হয়েছিলো । সৌদি গণমাধ্যম সৌদি গেজেট ও গালফ নিউজ জানায়, এবছর আরও ৫টি ভাষায় প্রচারিত হবে। প্রচারিত মোট ১০ টি ভাষার মধ্যে এবার স্থান পেয়েছে বাংলা।

গ্র্যান্ড মসজিদ ও মসজিদে নববীর চেয়ারম্যান অব জেনারেল অ্যাফেয়ার্সের চেয়ারম্যান ড. আব্দুল রহমান বিন আব্দুলাজিজ আল সুদাইস এই তথ্য জানিয়েছেন।  আরবির বাইরে যে ১০টি ভাষায় হজ খুতবা দেয়া হবে সেগুলো হলো; বাংলা, ইংরেজি, মালয়, উর্দু, ফার্সি, ফেঞ্চ, ম্যান্দারিন, তুর্কি, রুশ ও হাবশি।  

এবার ২২ জুলাই জিলহজ মাসের প্রথমদিন এ বছরের হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হবে। এতে সৌদি আরবে বসবাসরত বিভিন্ন দেশের ১০ হাজার মুসল্লি অংশ নিতে পারবেন। মহামারি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণরোধে সৌদি আরবের সিদ্ধান্তে এ বছর সীমিত আকারে হজ অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী, এক সপ্তাহ আগে অর্থাৎ ১৯ জুলাই থেকে হজে অংশগ্রহণকারীদের আইসোলেশনের মাধ্যমে এবারের হজের কার্যক্রম শুরু হওয়ার কথা জানায় সৌদির হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয়।

এক টুইট বার্তায় জানানো হয় যে, স্বাস্থ্যবিধি অনুযায়ী এবার বিশেষ শর্তে মুসল্লিদের হজ পালনের সুযোগ দেয়া হয়েছে। হজ শুরুর আগে হজে অংশগ্রহণকারী প্রটোকল অনুযায়ী ৭ দিনের আইসোলেশনে রয়েছেন।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কারণে গত ২২ জুন এক ঘোষণায় সৌদি কর্তৃপক্ষ জানায়, দেশটি বসবাসকারী সব দেশের নাগরিকদের এবারের হজে সীমিত আকারে অংশগ্রহণের অনুমতি দেবে।

মহামারি করোনা ভাইরাস যেন হজের সময় কারও মধ্যে না ছড়ায় সে লক্ষ্যে বিভিন্ন সতর্কতামূলক পদক্ষেপ নিয়েছে সৌদি সরকার। পর্যাপ্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পাশাপাশি বিনা অনুমতিতে মক্কা ও এর আশপাশের এলাকায় প্রবেশের ওপর কড়া নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

comments

আগের সংবাদবিশ্বব্যাপী করোনা শনাক্তে আবারও রেকর্ড
পরের সংবাদস্বাস্থ্যখাতের দুর্নীতির দায় সরকারের একার নয়: ডিজি