আনোয়ারায় গোবর ফেলা নিয়ে চাচাতো ভাইদের হাতে কিশোর খুন

আনোয়ারা উপজেলায় পশ্চিম বৈরাগ এলাকায় গোবর ফেলাকে কেন্দ্র করে ঝগড়ায় চাচাতো ভাইদের হাতে খুন হয়েছেন মাসুদুল আলম সিকদার (১৬) নামে এক স্কুল ছাত্র।

নিহত মাসুদুল ইসলাম সিকদার ওই এলাকার নুরুল আনোয়ার সিকদারের ছেলে এবং দক্ষিণ বন্দর উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবারের এসএসসির ফলপ্রার্থী। ভিটেবাড়ি নিয়ে বিরোধের জেরে এ হত্যাকাণ্ড হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নুরুল হক (৬০) নামের এক বৃদ্ধকে আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, পশ্চিম বৈরাগ এলাকায় প্রতিবেশিদের সঙ্গে জায়গা সম্পত্তি নিয়ে বিরোধের জেরে মারামারিতে মাসুদুল আলম নিহত হয়েছে। তার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

নিহতের বাবা নুরুল আনোয়ার বলেন, নুরুল হকের ভাই বদুরুল হকের কাছ থেকে একটি জমি ক্রয় করেন তিনি। তারা সম্পর্কে চাচাতো ভাই। নুরুল হকের কারণে কেনা জমি ভোগদখল করতে পারছেন না নুরুল আনোয়ার। বুধবার সকালে ওই জমিতে নুরুল আনোয়ারের প্রতিবন্ধী ছেলে মাসুদুল আলম সিকদার গোবর ফেলতে গেলে নুরুল হকের ছেলেদের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে নুরুল হকের ছেলে তিন ছেলের এলোপাতাড়ি লাঠির আঘাতে তার নাক-মুখে রক্তক্ষরণ হলে সে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে।

পরে স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মাসুদকে মৃত ঘোষণা করেন।

আনোয়ারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দুলাল মাহমুদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পুলিশ ফোর্স পাঠানো হয়েছে। ঘটনার জড়িতদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

মন্তব্য করুন

comments