মোবাইল ইন্টারনেটে ‘পে পার ইউজ’এর সর্বোচ্চ সীমা ৫ টাকা

102
শেয়ার

মোবাইল ইন্টারনেট ব্যবহারে ‘পে পার ইউজ (যতটুকু ব্যবহার ততটুকু বিল)’এর সর্বোচ্চ সীমা বেঁধে দিয়েছে নিয়ন্ত্রণ সংস্থা বিটিআরসি।

আগামী ১ মার্চ থেকে গ্রাহকের সম্মতি ছাড়া ৫ টাকার বেশী বিল করা যাবে না।

গতকাল সোমবার বিটিআরসি সব মোবাইল অপারেটরের কাছে এই বিষয়ে একটি নির্দেশনা পাঠিয়েছে।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, গ্রাহকের অজান্তে ‘পে পার ইউজ’র বিল ৫ টাকার বেশি করা যাবে না; তবে গ্রাহক চাইলে এই হারে ব্যবহার চালিয়ে যেতে পারবেন।

সাধারণত মোবাইল ইন্টারনেটে ব্যবহারের ক্ষেত্রে বিভিন্ন অপারেটরের গ্রাহকরা নানা প্যাকেজ নেন।

অনেক সময় গ্রাহকের প্যাকেজের ডেটা শেষ হয়ে যায় অথবা ডেটা থাকলেও প্যাকেজের বেঁধে দেওয়া সময়সীমা পার হয়ে যায়, তখন ইন্টারনেট ব্যবহার করলে গ্রাহকের অজান্তেই ‘পে পার ইউজ’ চালু হয়ে যায়, যার বিল সাধারণত অনেক বেশি হয়।

পে পার ইউজে বিলের হার সাধারণত ০.০১ টাকা/১০ কেবি (+ট্যাক্স) বা ০.০২ টাকা/১০ কেবি (কিলোবাইট)।

গ্রাহকদেরকে উচ্চ বিলের এই খড়গ থেকে বাঁচাতেই বিটিআরসি বিলের সর্বোচ্চ সীমা বেঁধে দিয়েছে।

বিটিআরসির পাঠানো চিঠিতে বলা হয়, ইন্টারনেট ব্যবহারের ক্ষেত্রে গ্রাহকদের ‘বিল শক’ থেকে রক্ষা করার জন্য ‘পে পার ইউজ’ পাঁচ টাকার বেশি হবে না। তবে কোনো গ্রাহক পাঁচ টাকার বেশি লিমিট নিতে চাইলে তার কাছ থেকে এমএসএস বা ইউএসএসডির মাধ্যমে কনসেন্ট বা সম্মতি নিতে হবে, যাতে করে গ্রাহকের কাছ থেকে পরবর্তীতে কোনো অভিযোগ উত্থাপিত হলে অপারেটর বা গ্রাহকের দৃশ্যমান প্রমাণ উপস্থাপন করা সম্ভব হয়।

এছাড়া, মোবাইল অপারেটরদের এই সঙ্গে ২০টি রেগুলার অফার এবং ১৫টি প্রমোশনাল অফারে মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখতে নির্দেশনা দিয়েছে বিটিআরসি।

মন্তব্য করুন

comments