এক নম্বরে সব অপারেটরের সুবিধা আসছে বাংলাদেশে

147
শেয়ার

সব জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে চালুর অনুমতি পেলো বহুল প্রতীক্ষিত মোবাইল ফোন নম্বর অপরিবর্তিত রেখে অপারেটর পরিবর্তনের সুবিধা মোবাইল নম্বর পোর্টেব্লিটি এমএনপি।

মঙ্গলবার বিকেলে বিটিআরসির সম্মেলন কক্ষে বাংলাদেশ ও স্লোভেনিয়ার যৌথ কনসোর্টিয়ার ইনফোজিলিয়ান বিডি টেলিটেককে দেশে মোবাইল অপারেটরদের মাধ্যমে এ সেবা প্রদানের জন্য নোটিফিকেশন দেয়া হয়। এর মাধ্যমে একজন গ্রাহক ৩০ টাকার বিনিময়ে এসএমএসের মাধ্যমে অপারেটর পরিবর্তন করতে পারবেন।এর সর্বোচ্চ ৭২ ঘণ্টার মধ্যে তা চালু হয়ে যাবে। তবে আগের অপারেটরে ফিরতে হলে নির্দিষ্ট পরিমাণ ফি দিয়ে গ্রাহককে অপেক্ষা করতে হবে ৯০ দিন। এর ফলে মোবাইল অপারেটরদের মধ্যে গুণগত সেবা প্রদানে প্রতিযোগিতা ও গ্রাহক সংখ্যা বাড়বে বলে জানিয়েছেন বিটিআরসির চেয়ারম্যান।

লাইসেন্স পাওয়ার ৬ মাসের মধ্যে মোবাইল গ্রাহকদের এই সেবার আওতায় আনতে হবে বলে প্রতিষ্ঠানটিকে নির্দেশ দেয়া হয়। এদিকে এই সেবা চালু হওয়ায় খুশি মোবাইল গ্রাহকরাও। বিটিআরসির বেঁধে দেওয়া সময় ২০১৮ সালের মে মাস পর্যন্ত হলেও মোবাইল ফোন অপারেটরগুলোর সহযোগিতা পেলে আগামী বছরের মার্চ-এপ্রিল নাগাদ এমএনপি সেবা চালু করা যাবে বলে জানিয়েছে এই কনসোর্টিয়াম।

বর্তমানে বিশ্বের ৭২টি দেশে এমএনপি চালু রয়েছে।প্রতিবেশী দেশ ভারতে ২০১১ সাল ও পাকিস্তানে এই সেবা চালু হয় ২০০৭ সালে।

মূলত ভয়েস কল ও ইন্টারনেটের উচ্চমূল্য, দুর্বল নেটওয়ার্ক কাভারেজ, নেটওয়ার্ক সমস্যা, মোবাইল ফোনের সংযোগে ঘনঘন কলড্রপ, ভয়েস কলের নিম্নমান ও গ্রাহক সেবার অসন্তুষ্টি দূর করবে এমএনপি সেবা।

 

মন্তব্য করুন

comments