২০১১ বিশ্বকাপের ফাইনাল নিয়ে তদন্ত চান রানাতুঙ্গা

49
শেয়ার

বিশ্বকাপজয়ী শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক অর্জুনা রানাতুঙ্গা তদন্ত হওয়া উচিত বলে মনে করেন ২০১১ বিশ্বকাপের ফাইনালের। ঐ ম্যাচে ধারাভাষ্যকার হিসেবে মাঠে ছিলন তিনি। বিষয়টি নিয়ে এবার বাকযুদ্ধে জড়ালেন আরেক সাবেক অধিনায়ক কুমারা সাঙ্গাকারার সঙ্গে।

প্রসঙ্গতঃ ২০০৯ সালের মার্চে লাহোরে শ্রীলঙ্কার টিম বাসে সন্ত্রাসীদের হামলার ঘটনা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন কুমার সাঙ্গাকারা। লঙ্কান কিংবদন্তি প্রশ্ন তুলেছেন, তাঁদের জীবন ঝুঁকিতে ফেলে কেন সেবার পাকিস্তান সফরে পাঠানো হয়েছিল? কারা এই সফরের সূচি তৈরি করেছিল—বিষয়টির তদন্ত দাবি করেছেন সাঙ্গা।

শ্রীলঙ্কা যখন পাকিস্তান সফরে যায়, তখন এসএলসির অন্তর্বর্তীকালীন কমিটির প্রধান ছিলেন অর্জুনা রানাতুঙ্গা। সাঙ্গাকারার তিরটা স্বাভাবিকভাবে বিদ্ধ করছে সাবেক এই অধিনায়ককে। রানাতুঙ্গা চুপ থাকেননি। সাঙ্গাকারার জবাবে সাবেক শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক প্রশ্ন তুলেছেন, তদন্ত হওয়া উচিত ২০১১ বিশ্বকাপের ফাইনালেরও। ওয়াংখেড়ের ফাইনালে শ্রীলঙ্কার করা ২৭৪ রান ভারত টপকেছিল ৬ উইকেট আর ১২ বল বাকি থাকতে।

টুর্নামেন্টজুড়ে দারুণ খেলা শ্রীলঙ্কা ফাইনালে কেন ভারতের বিপক্ষে লড়াই করতে পারল না, সে প্রশ্ন তুলেছেন রানাতুঙ্গা, ‘যদি সাঙ্গাকারা পাকিস্তান সফর নিয়ে তদন্তের দাবি করে, সেটি হওয়া উচিত। তবে আমি মনে করি, আমাদের আরও একটা তদন্ত করা উচিত, ২০১১ বিশ্বকাপের ফাইনালে কী হয়েছিল। আমার মনে হয়, ফিটনেস ইস্যুর চেয়ে ক্রীড়ামন্ত্রীর এদিকে বেশি নজর দেওয়া উচিত।’

২০০৯ সালের মার্চে লাহোরে শ্রীলঙ্কার টিম বাসে সন্ত্রাসীদের হামলার ঘটনা ক্রিকেট বিশ্বই ভুলতে পারে না, সেখানে কুমার সাঙ্গাকারা ভুলবেন কী করে? ২০১১ বিশ্বকাপের ফাইনালে ধারাভাষ্যকার হিসেবে ওয়াংখেড়েতে ছিলেন রানাতুঙ্গা। চোখের সামনে উত্তরসূরিদের নিস্তেজ লড়াই দেখে ভীষণ হতাশ হয়েছিলেন বিশ্বকাপজয়ী শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক।

তিনি বলেন, ‘কী হয়েছিল সেদিন, আমি সেটি উন্মোচন করতে পারছি না। তবে একদিন প্রমাণসহ সত্যটা বের করব। এ ব্যাপারে তদন্ত হওয়া উচিত। বিশ্বকাপ ফাইনালে ধারাভাষ্যকার হিসেবে মাঠে ছিলাম। শ্রীলঙ্কার খেলা দেখে ভীষণ হতাশ হয়েছিলাম।’

মন্তব্য করুন

comments