X

বর্ষসেরা ফুটবলারের তালিকায় মেসি, রোনালদো ও নেইমার

ছবিঃ সংগৃহিত

২০১৭ সালের জন্য পুরুষ বর্ষসেরা ফুটবলারের সংক্ষিপ্ত তালিকায় জায়গা পেয়েছেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো, লিওনেল মেসি ও নেইমার।

গেলবার সেরা হয়েছিলেন রোনালদো। তার আগেরবার মেসি। গেল নয় বছরে এই দুজনেই পেয়েছেন সেরার পুরষ্কার। এবার ২৪ জনের তালিকায় আছেন লুইস সুয়ারেস ও জিয়ানলুইজি বুফনও।

বার্সেলোনা সুপারস্টার লিওনেল মেসি সর্বোচ্চ পাঁচবার ‘বেস্ট ফিফা মেনস প্লেয়ার’ পুরষ্কার জিতেছেন। রোনালদো জিতেছেন চারবার। এবারও রোনালদোর জয়ের সম্ভাবনাই বেশি। গেল মৌসুমে রিয়ালের লা লিগা ও চ্যাম্পিয়ন্স জয়ে সবচেয়ে বড় অবদান রোনালদোর। ইতিহাসের প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নকআউট পর্বে ৫০ গোলের মাইলফলক এবারই স্পর্শ করেছেন তিনি। তিনি জিতে গেলে এই পুরষ্কার জয়ে মেসি-রোনালদোর পাল্লা হবে সমানে সমান।

বার্সাকে বড় কোন ট্রফি জেতাতে না পারলেও এবার ক্লাব ফুটবল ক্যারিয়ারে ৫০০ গোলের মাইলফলক স্পর্শ করেন তিনি। ব্লুগানারদের ইতিহাসের সেরা স্কোরারও তিনিই।

এই ট্রফি জয়ের দৌড়ে থাকতে পারেন ইতালিয়ান লেজেন্ড গোলরক্ষক জিয়ানলুইজি বুফনও। ইউভেন্তাসকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল পর্যন্ত নিয়ে যাওয়ার বড় কীর্তি গোলবারের নিচের এই অতন্দ্র প্রহরীর।

বার্সেলোনায় সবসময় মেসির ছায়ার নিচে থাকলেও চ্যাম্পিয়ন্স লিগে পিএসজির বিপক্ষে কাতালানদের অবিস্মরণীয় জয়ের মূল নায়ক ছিলেন নেইমার। দুনিয়া কাঁপানো ট্রান্সফারে বার্সা থেকে পিএসজিতে পাড়ি জমানো ব্রাজিলিয়ান তারকা আছেন তালিকার উপরের দিকেই।

গত নভেম্বরের ২০ তারিখ থেকে চলতি বছরের ২ জুলাই পর্যন্ত ফুটবলারদের পারফরম্যান্স বিবেচিত হবে পুরষ্কারের জন্য। সেপ্টেম্বরে চূড়ান্ত তালিকায় জায়গা পাবেন তিনজন। তাদের নিয়েই হবে ভোটাভুটি। জাতীয় দলের কোচ, অধিনায়ক ও প্রতিটি দেশের একজন করে সাংবাদিক এবং ফিফা ডটকমে নিবন্ধন করা ফুটবলপ্রেমীদের ভোটে বিজয়ী নির্বাচন করা হবে।

২৩ অক্টোবর লন্ডনে ঘোষণা করা হবে বিজয়ীর নাম। ২০১০ সাল থেকে ফিফা বর্ষসেরা পুরস্কার ও ফ্রান্স ফুটবলের ব্যালন ডি’অর একীভূত হয়ে ২০১৫ পর্যন্ত ফিফা ব্যালন ডি’অর নামে পুরস্কারটি দেওয়া হচ্ছিল। গেলবছর থেকে আবার আলাদা হয়ে পুরষ্কার দিচ্ছে ফিফা ও ব্যালন ডি’অর।

মন্তব্য করুন

comments