প্রবাসীরা এখন আগের চেয়ে বেশী গৃহঋণ পাবেন

64
শেয়ার
ছবিঃ সংগৃহিত

নতুন নিয়ম অনুযায়ী প্রবাসী বাংলাদেশিরা দেশে বাড়ি নির্মাণ বা ফ্ল্যাট কিনতে মোট খরচের ৭৫ শতাংশ ব্যাংক থেকে গৃহঋণ (হাউজ লোন) নিতে পারবেন।

রোববার বাংলাদেশ ব্যাংকের এক প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, বাংলাদেশি মুদ্রায় এই ঋণ দেওয়া হবে। প্রবাসীদের পাঠানো রেমিটেন্স থেকে এই ঋণ পরিশোধ করা যাবে। কোনো প্রবাসী বাংলাদেশে ১ কোটি টাকা মূল্যে বাড়ি কিনতে চাইলে তিনি ২৫ লাখ টাকা রেমিট্যান্স পাঠাবেন। বাকি ৭৫ লাখ টাকা ব্যাংক থেকে ঋণ নেয়ার সুযোগ পাবেন।

এর আগে গৃহঋণ নিয়ে বাড়ি করার ক্ষেত্রে ৫০ শতাংশ অর্থ প্রবাসীর নিজের এবং বাকি ৫০ শতাংশ ব্যাংক থেকে পাওয়া যেত। রোববার নতুন প্রজ্ঞাপন বলা হয় ব্যাংক ও গ্রাহকের (প্রবাসী) ঋণের অনুপাত হবে ৭৫:২৫। এক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ১ কোটি ২০ লাখ টাকা ঋণ নেয়ার সুযোগ রয়েছে।

নিয়মানুযায়ী, বিদেশি উৎস থেকে আয়ের বিপরীতে ঋণের অর্থ পরিশোধ করা যাবে। এক্ষেত্রে বৈদেশিক মুদ্রা লেনদেনকারী ব্যাংক শাখায় প্রবাসীর পরিচালিত অ্যাকাউন্টে অর্থ পাঠিয়ে কিস্তি পরিশোধ করতে পারবেন তিনি। আবার কেউ চাইলে বাসা ভাড়া থেকে পাওয়া অর্থের বিপরীতে ঋণ পরিশোধ করতে পারবেন।

সরকারি-বেসরকারি সব ব্যাংক থেকেই এই অনুপাতে গৃহঋণ (হাউজ লোন) নিতে পারবেন প্রবাসীরা। ব্যাংকগুলো ইচ্ছা করলে অতিরিক্ত মর্টগেজ নেবে। তৃতীয় পক্ষকে গ্যারান্টার হিসেবেও রাখতে পারবে। ঋণ সমন্বয় ও তদারকির জন্য বাংলাদেশে অবস্থানরত কাউকে ক্ষমতা (পাওয়ার অব অ্যাটর্নি) দিতে হবে।

মন্তব্য করুন

comments