অবশেষে সেই ইউএনও সালমনের বিরুদ্ধে মামলা খারিজ

42
শেয়ার

অবশেষে বরগুনা সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা গাজী তারিক সালমনের বিরুদ্ধে দায়ের করা মানহানির মামলা খারিজ করে দিয়েছে আদালত। রবিবার (২৩ জুলাই) বাদী বরিশাল জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি সৈয়দ ওবায়েদুল্লাহ নিজেই এ আবেদন করেন।

রোববার বেলা সাড়ে ১১টায় অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট অমিত কুমার দে মামলাটি খারিজ করে দেন। মামলার বাদী বরিশাল আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও আওয়ামী লীগ থেকে সাময়িক বহিষ্কৃত নেতা অ্যাডভোকেট ওবায়েদুল্লাহর সাজু মামলা প্রত্যাহারের আবেদন করলে বিচারক তা মঞ্জুর করে মামলাটি খারিজ করে দেন।

তিনি কেন মামলা প্রত্যাহারের আবেদন করেছেন মামালার শুনানিতে তা জানতে চাইলে ওবায়েদুল্লাহ বলেন, ‘বিষয়টি নিয়ে ভুল বোঝাবুঝি হয়েছিল। এ কারণে মামলা প্রত্যাহারের আবেদন করা হয়েছে।’

প্রসঙ্গত, বরগুনার ইউএনও বরিশালের আগৈলঝাড়ার ইউএনও থাকাকালীন ২৬ মার্চের স্বাধীনতা দিবসের নিমন্ত্রণ কার্ড ছাপানো হয়। ওই নিমন্ত্রণপত্রের পেছনের পাতায় বঙ্গবন্ধুর ছবি বিকৃত করার অভিযোগ করা হয়। পরে বঙ্গবন্ধুর ছবি বিকৃত করার অভিযোগ তুলে গত ৭ জুন বরিশাল আদালতে পাঁচ কোটি টাকার মানহানি মামলা দায়ের করেন বরিশাল জেলা আওয়ামীলীগ নেতা সাজু।

এর প্রেক্ষিতে আদালত সমন জারি করে ২৭ জুলাইয়ের মধ্যে তারিক সালমনকে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেন। গত বুধবার ওই মামলায় আদালতে হাজিরা দিয়ে জামিনের আবেদন করলে নামঞ্জুর করা হয়। জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন বরিশাল চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. আলী হোসাইন। প্রায় ২ ঘন্টা গরাদখানায় থাকার পর বিচারক তার আবেদন মঞ্জুর করেন।

মামলা খারিজের আদেশের পর যোগাযোগ করা হলে তারিক সালমান তাকে সমর্থনকারীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

মন্তব্য করুন

comments