২৩ জনের মরদেহ দেশে আসছে আজ

24
শেয়ার

নেপালের কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন বিমানবন্দরে ইউএস-বাংলার বিমান দুর্ঘটনায় নিহত বাংলাদেশিদের মরদেহ দেশে আনা হচ্ছে।

বিমানবাহিনীর বিশেষ বিমানযোগে আজ সোমবার বিকেল ৩টায় মরদেহগুলো ঢাকায় পৌঁছবে। আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ইউএস-বাংলার মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) কামরুল ইসলাম বলেন, আজ সোমবার ২৩টি মরদেহ দেশে পৌঁছবে। এ জন্য ২৩টি অ্যাম্বুলেন্স প্রস্তুত রাখা হয়েছে। জানাজা শেষে স্বজনদের কাছে লাশ হস্তান্তর করে তাদের গন্তব্যে পৌঁছাতে ইউএস-বাংলা প্রস্তুত রয়েছে।

এদিকে আহত বাংলাদেশিদের মধ্যে শাহীন বেপারী নামে আরও একজন গতকাল রোববার দেশে ফিরেছেন। একটি বিশেষ বিমানে গতকাল বিকেল ৩টা ২০ মিনিটে ঢাকায় পৌঁছানোর পর আহত শাহীন বেপারীকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়।

গতকাল সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, বিমান দুর্ঘটনায় আহত হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন রোগীরা ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠছেন।

১২ মার্চ বিমান দুর্ঘটনায় নিহত ৫১ জনের মধ্যে ২৬ জন বাংলাদেশি। তাদের মধ্যে গতকাল রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত ২৩ জনের মরদেহ শনাক্ত করা গেছে। আরও ছয়টি মরদেহ শনাক্ত হলেও তাদের মধ্যে বাংলাদেশি রয়েছেন কি-না, তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। যে ২৩ ব্যক্তিকে শনাক্ত করা হয়েছে, তাদের দেশে ফিরিয়ে আনার প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছেন কাঠমান্ডুতে বাংলাদেশ দূতাবাসের ফার্স্ট সেক্রেটারি মোহাম্মদ আল আলামুল ইমাম।

শনাক্ত ২৩ জন হলেন- বিলকিস আরা, আখতারা বেগম, মো. রকিবুল হাসান, মো. হাসান ইমাম, মিনহাজ বিন নাসির, তামারা প্রিয়ন্ময়ী, মো. মতিউর রহমান, এসএম মাহমুদুর রহমান, তাহারা তানভীন শশী রেজা, অনিরুদ্ধ জামান, রফিক উজ জামান, উম্মে সালমা, আঁখি মনি, নুরুন্নাহার, শাহিন আক্তার নাবিলা, এফএইচ প্রিয়ক, কেএইচএম সাফে এবং পাইলট আবিদ সুলতান, কো-পাইলট পৃথুলা রশীদ, খাজা সাইফুল্লাহ, ফয়সাল, সানজিদা ও নুরুজ্জামান। এ ছাড়া আরিফুজ্জামান, পিয়াস রায় এবং নজরুল ইসলামের মরদেহ গতকাল রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত শনাক্ত করা যায়নি।

মন্তব্য করুন

comments