তমব্রুতে ক্যাম্পে মিয়ানমার সেনাদের হামলা, রোহিঙ্গাদের প্রতিরোধ

112
শেয়ার

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তের তুমব্রু জিরো পয়েন্টে ঢুকে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে হামলা চালিয়েছে মিয়ানমারের সেনারা। এসময় তারা গুলিবর্ষণ করে বলে জানা গেছে। অবশ্য সম্মিলিত রোহিঙ্গাদের প্রতিরোধের মুখে পিছু হটতে বাধ্য হয় সেনারা।

হামলার ঘটনায় সীমান্তে উত্তেজনা বিরাজ করছে। বিজিবি জানিয়েছে, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে থাকলেও সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে তারা।

সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার রাত আটটার পরে কাটাতারে উপর দিয়ে নোম্যান্স ল্যান্ডে ঢুকার চেষ্টা করে মিয়ানমারে বর্ডার গার্ড পুলিশের সদস্যরা। এসময় সেখানে ক্যাম্পে থাকা রোহিঙ্গাদের উপরে হামলার চেষ্টা চালালে রোহিঙ্গারা প্রতিরোধ গড়ে তোলেন। এক পর্যায়ে তাদের লক্ষ্য করে গুলি চালায় সেনারা। তবে এতে হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

নো ম্যান্স ল্যান্ডে অবস্থান করা রোহিঙ্গা মোঃ ওবায়েদ জানান, সন্ধ্যার পরে থেকে মিয়ানমারের সদস্যরা কাটা তারের বেড়া পার হওয়ার চেষ্টা করে। একইসাথে রোহিঙ্গাদের লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল ছুঁড়তে থাকে।

কক্সবাজারের ৩৪ বিজিবির অধিনায়ক মনজুরুল আহসান খান জানিয়েছেন, এ ঘটনার পর থেকে সীমান্তে বিজিবি সতর্ক অবস্থানে রয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ওই সীমান্তে সেনা সমাবেশ শুরু করে মিয়ানমার সেনাবাহিনী। এর প্রেক্ষিতে ঢাকায় নিযুক্ত মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে তলব করে প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ।

বিকালে মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত লোইন উ’কে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ডেকে নিয়ে আনুষ্ঠানিক প্রতিবাদপত্র হস্তান্তর করা হয়।

এর আগে বিজিবি জানায়, তমব্রু সীমান্তে অতিরিক্ত সেনা মোতায়েন করেছে মিয়ানমার। নোম্যান্স ল্যান্ডে রোহিঙ্গা ক্যাম্পের পাশে আজ সকাল থেকে অবস্থান নেয় দেশটির সেনারা। সেখানে আগে যে পরিমাণ রোহিঙ্গা ছিল এখন তার চেয়ে অনেক কম সংখ্যক রোহিঙ্গা অবস্থান করছে।

মন্তব্য করুন

comments