রোহিঙ্গাদের জন্য আবারো ত্রাণ পাঠালো ভারত এবং চীন

34
শেয়ার

মিয়ানমারে সেনাবাহিনীর হাতে নির্যাতনের শিকার হয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জন্য আবারও ত্রাণসামগ্রী পাঠিয়েছে চীন। ৫৩ দশমিক ৫০ টন ত্রাণ নিয়ে চীনের একটি কার্গো ফ্লাইট আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় চট্টগ্রাম শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মো. জিল্লুর রহমান চৌধুরীর হাতে এসব ত্রাণসামগ্রী হস্তান্তর করেন চীন দূতাবাসের ইকোনমিক অ্যান্ড কর্মাশিয়াল কাউন্সিলর লি গুয়ানজিয়ান।

বিষয়টি নিশ্চিত করে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মো. হাবিবুর রহমান জানান, দ্বিতীয় দফায় চীনের পাঠানো ৫৩ দশমিক ৫০ টন ত্রাণসামগ্রী এসেছে। দুই দফায় ১১০ টন ত্রাণসামগ্রী পাঠিয়েছে চীন। ত্রাণসামগ্রীর মধ্যে ২ হাজার পিস তাঁবু ও ৩ হাজার পিস কম্বল রয়েছে। এসব ত্রাণসামগ্রী কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে উখিয়ায় রোহিঙ্গা শরণার্থীদের হাতে পৌঁছে দেওয়া হবে। এর আগে বুধবার ৫৭ টন ত্রাণসামগ্রী পাঠায় চীন।
চীনের ত্রাণ সামগ্রীর মধ্যে তাঁবুও রয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

এদিকে রোহিঙ্গাদের জন্য আরও ৭০০ টন ত্রাণ পাঠিয়েছে ভারত। ভারতীয় ত্রাণবাহী জাহাজটি বৃহস্পতিবার (২৮ সেপ্টেম্বর) ভোর সাড়ে ৫টায় চট্টগ্রাম বন্দরের এক নম্বর জেটিতে এসে পৌঁছায়।

বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাই কমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা জেলা প্রশাসক জিল্লুর রহমান চৌধুরীর কাছে তার দেশ থেকে পাঠানো ত্রাণসামগ্রী বুঝিয়ে দেন। ভারতীয় ত্রাণবাহী জাহাজে ৬৭ হাজার ১৬৭ প্যাকেজে ৭০০ টন ৬০০ কেজি ত্রাণসামগ্রী রয়েছে।

জেলা প্রশাসনের অতিরিক্ত প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মো. হাবিবুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি আরও বলেন, ‘এ নিয়ে ভারত সরকার রোহিঙ্গাদের জন্য তিন দফায় প্রায় ৮০০ টন ত্রাণ পাঠিয়েছে। আজ নিয়ে আসা ত্রাণসামগ্রীর মধ্যে চাল, ডাল, ভোজ্য তেল রয়েছে। ত্রাণগুলো খুব শিগগির কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের কাছে পাঠিয়ে দেওয়া হবে।’

মন্তব্য করুন

comments