বাংলাদেশ সীমান্তে বিজিপির গুলি, সতর্কবস্থায় বিজিবি

163
শেয়ার

সতর্ক করে দেয়ার পরও বাংলাদেশের বান্দরবান জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার তুমব্রু ও কক্সবাজারের ঘুমধুম সীমান্তে বসতবাড়ি লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করেছে মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিজিপি)। মিয়ানমারের হেলিকপ্টার তিন দফায় আকাশসীমা লঙ্ঘনের ঘটনায় বাংলাদেশের প্রতিবাদ জানানোর একদিনের মাথায় সীমান্তে এ ঘটনা ঘটল।

বিজিবি ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে,গতকাল ৩রা সেপ্টেম্বর রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে বেশ কয়েক রাউন্ড গুলি ছোঁড়া হয়।এর মধ্যে একটি গুলি তুমব্রুর উত্তরপাড়ার আবদুল করিম সওদাগরের টিনের চাল ভেদ করে ঘরে পড়ে। তবে এতে হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।এসময় সীমান্তে বাংলাদেশীদের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। গুলিবর্ষণের পরপরই কক্সবাজারের ঘুমধুম এবং বান্দরবানের তুমব্রু সীমান্তে নিরাপত্তা বাড়িয়ে সতর্ক অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিবি।

বিজিবি ৩৪ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মঞ্জুরুল হাসান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আজিজ জানান, ‘তুমব্রু বাজারে গুলি এসে পড়ায় স্থানীয়রা আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়েছে। আমরা কয়েকটি গুলি উদ্ধার করে স্থানীয় বিজিবি ক্যাম্পে জমা দিয়েছি।’

পরে বিজিবি ও পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।এ বিষয়ে বিজিবি ৩৪ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মঞ্জুরুল হাসান বলেন, ‘মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিপি প্রায়ই এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়ে থাকে। এরই ধারাবাহিকতায় রোববার সন্ধ্যায় তারা বাংলাদেশের অভ্যন্তরে কয়েক রাউন্ড গুলি নিক্ষেপ করেছে।’

তিনি বলেন, ‘স্থানীয়রা এক রাউন্ড গুলি উদ্ধার করে আমাদের ক্যাম্পে দিয়ে গেছে। পরে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি।’

মন্তব্য করুন

comments