ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে চলবে বিলাসবহুল দ্বিতল বাস

232
শেয়ার

কিছুদুনের মধ্যেই ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে চলবে বিলাসবহুল দ্বিতল বাস। চট্টগ্রাম বন্দরে যা বর্তমানে খালাসের অপেক্ষায় আছে।

প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে দূরপাল্লার রুটে বিলাসবহুল ‘ডাবল ডেকার’ বাস এসেছে। জার্মানির ‘ম্যান’ ব্র্যান্ডের এসব বাসের সম্পূর্ণ বডি মালয়েশিয়ায় প্রস্তুত করা হয়েছে।

ইউরোপ, এশিয়ার মধ্যে মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুরের মতো দেশে দূরের পথে ডাবল ডেকার বাস চলতে দেখা গেলেও বাংলাদেশে এ ধরনের বাস এবারই প্রথম নিয়ে আসছে গ্রিনলাইন পরিবহন। ঢাকা থেকে দেশের অন্যান্য দূরবর্তী শহরে বিলাসবহুল বাসের মাধ্যমে দীর্ঘদিন ধরে সেবা দিচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি।

দু-একদিনের মধ্যে এই ১০টি ডাবল ডেকার বাস চট্টগ্রাম বন্দর ছেড়ে সড়কপথে ঢাকায় পৌঁছাবে। এরপর আগামী ১৮, ১৯ বা ২০ আগস্ট এ ১০টি বাসের উদ্বোধন করবেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

ঢাকায় বর্তমানে বিআরটিসির ডাবল ডেকার সিটি বাস চলাচল করে। কিন্তু দূরপাল্লার রুটে বিলাসবহুল ডাবল ডেকার বাসের আগমন দেশে এটাই প্রথম। গ্রিন লাইন পরিবহন ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটের জন্য বাসগুলো নিয়ে এসেছে।

রবিবার রাতে গ্রিন লাইন পরিবহনের জেনারেল ম্যানেজার আব্দুস সাত্তার এসব তথ্য জানান। তিনি আরও বলেন, ২০ আগস্ট থেকে ডাবল ডেকার সব বাস ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে যাত্রী সেবায় নামবে। ৪০ আসনের এসব বাসে ‘বিজনেস ক্লাস’ সেবা থাকবে। প্রতি সিটের ভাড়া হবে ১৩০০ টাকা। একপাশে ২টি, অন্যপাশে ১টি করে আসন বিন্যাস করা আছে।

তিনি জানান, ৪৬০ হর্সপাওয়ারের ৮ চাকার ‘মাল্টি এক্সেল’ বাসগুলোর নিচতলায় থাকছে ৭টি আসন এবং দ্বিতীয়তলায় বাকি ৩৩ আসন। গতিসীমা ১০০ এর মধ্যে রেখে বাসগুলো চালানো হবে।

আব্দুস সাত্তার বলেন, সুইডেন, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুরের এবং ব্যাংককে এ রকম বাস সচরাচর দেখা যায়। ইদানীং মিয়ানমারে চলা শুরু হয়েছে। আর বাংলাদেশে ডাবল ডেকারের এটাই প্রথম আগমন।

তিনি আরও জানান, ৫ রংয়ের ১০টি বাসের মধ্যে ২টি আকাশী নীল, ২টি লাল, ২টি সাদা, ২টি কমলা ও ২টি গাঢ় নীল রংয়ের বাস।

গ্রিন লাইন কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ঢাকা-চট্টগ্রাম চারলেনে উন্নীত হওয়ায় তারা অত্যাধুনিক এসব সেবা নিয়ে আসছে গ্রিন লাইন। পরে আরও বাস আসবে।

মন্তব্য করুন

comments