ঈদে ট্রেন-বাসের আগাম টিকিট পাওয়া যাবে ১২ জুন থেকে

67
শেয়ার
ঈদ-উল-ফিতর এর বাকী নেই আর বেশিদিন। এ উপলক্ষে ট্রেন ও বাসের আগাম টিকিট বিক্রি শুরু হবে আগামী ১২ জুন থেকে। আর ১৯ জুন থেকে ট্রেনের ফিরতি আগাম টিকিট বিক্রি হবে। ঢাকা ও চট্টগ্রাম  রেলস্টেশন থেকে বিশেষ ব্যবস্থাপনায় এবার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত ঈদের অগ্রিম টিকিট বিক্রি করা হবে।
বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রেলের মহাপরিচালক আমজাদ হোসেন। তিনি বলেন, আগামী ৮ জুন বৃহস্পতিবার  রেলভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রিসহ প্রয়োজনীয় বিষয়ে বিস্তারিত জানাবেন রেলপথ মন্ত্রী মুজিবুল হক। এদিকে বাসের আগাম টিকিট বিক্রির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ বাস ট্রাক ওনারস এসোসিয়েশনের ভাইস প্রেসিডেন্ট শ্যামলী পরিবহনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রমেশ চন্দ্র ঘোষ।
রেল সূত্র জানিয়েছে, রাজধানীর কমলাপুর রেলস্টেশনে অন্যান্য বারের মত এবারও ২৩টি কাউন্টার থেকে টিকিট বিক্রি হবে। নারীদের জন্য থাকবে ২টি কাউন্টার। সকাল ৮ থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত একটানা টিকিট বিক্রি হবে। একজন সর্বাধিক ৪টি টিকিট কিনতে পারবেন। পাশপাপাশি ট্রেন ও বাসে অনলাইনেও আগাম টিকিট বিক্রি করা হবে। এবারও  ঈদের আগে ঢাকা-চট্টগ্রাম-ঢাকা রেলপথে একজোড়া নতুন বিরতিহীন আন্তঃনগর ট্রেন চালু হবে। এছাড়া যাত্রীদের যাতায়াতের সুবিধার্থে বিভিন্ন রুটে ঈদ উপলক্ষে ৭ জোড়া বিশেষ ট্রেন পরিচালনা করা হবে।
বাস মালিক সংগঠন এবং রেল কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, আগামী ২৭ জুন মঙ্গলবার ঈদ হলে ২২ জুন বৃহস্পতিবার এবং ২৩ জুন শুক্রবারের টিকিটের জন্য বেশি চাপ থাকবে। কারণ ওই দুইদিন সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের চাকরিজীবীরা অফিস ছাড়বেন। তবে কম চাপ থাকবে ২৪, ২৫ ও ২৬ জুনের টিকেটের।
অনলাইনেও কাটা যাবে ট্রেনের টিকেট
ট্রেনের টিকিট:  রেলসূত্র জানায়, আগামী ১২ জুন বিক্রি হবে ২১ জুনের টিকিট। ১৩ জুন বিক্রি হবে ২২ জুনের টিকিট। ১৪ জুন হবে ২৩ জুনের টিকিট। ১৫ জুন বিক্রি হবে ২৪ জুনের টিকিট। আর সর্বশেষ ১৬ জুন বিক্রি হবে ২৫ জুনের টিকিট। আর ফিরতি আগাম টিকিট বিক্রি শুরু হবে ১৯ জুন থেকে। রাজশাহী, খুলনা, রংপুর, দিনাজপুর ও লালমনিরহাট স্টেশন থেকে বিশেষ ব্যবস্থাপনায় সকাল ৮টা থেকে বিক্রি শুরু হবে।
কমলাপুর রেল স্টেশন ম্যানেজার সীতাংশু চক্রবর্তী বলেন, আশা করি টিকিট পেতে যাত্রীদের ভোগান্তি হবে না। যতক্ষণ হাতে টিকিট থাকবে ততক্ষণ বিক্রি হবে। কমলাপুর রেল স্টেশন থেকে প্রতিদিন প্রায় ৫৩ হাজার টিকিট বিক্রির সক্ষমতা রয়েছে আমাদের।
বাসের টিকিট: বাংলাদেশ বাস ট্রাক ওনারস এসোসিয়েশনের ভাইস প্রেসিডেন্ট রমেশ চন্দ্র ঘোষ বলেন, সব কিছু বিবেচনায় নিয়েই আগামী ১২ জুন থেকে বাসের আগাম টিকিট বিক্রি শুরু করা হচ্ছে। এ জন্য প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নেওয়ার জন্য পরিবহন মালিকদের সংগঠনের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। তিনি বলেন, এবার রাস্তাঘাট ও বৃষ্টির কারণে কিছুটা বিপর্যয় হতে পারে। তবে টিকিট পেতে কারো খুব একটা বেগ পেতে হবে না। গাবতলী ও সায়েদাবাস বাস টার্মিনাল এবং কল্যাণপুর, আসাদগেট, আরামবাগ ও মৌচাকে অবস্থিত বিভিন্ন আন্তঃজেলা বাসের কাউন্টার থেকে অগ্রিম টিকেট পাওয়া যাবে। তিনি বলেন, কোনো ভাবেই ঈদ উপলক্ষে পরিবহনের ভাড়া বাড়বে না। এছাড়া প্রতি বাসে ২টি করে টিকিট রিজার্ভ রাখা হবে।
শ্যামলী পরিবহনের একজন ম্যানেজার বলেন, আগাম টিকিট বিক্রির ব্যাপারে প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। ১২ তারিখ থেকেই টিকিট বিক্রি শুরু করতে পারবো বলে আমরা আশাবাদী।
বাস অ্যাসোসিয়েশনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ১২ জুন থেকে আগাম টিকিট বিক্রি শুরু হবে। এ জন্য সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। আশা করি সুষ্ঠু পরিবেশেই বাস কাউন্টারগুলো থেকে মানুষ টিকিট সংগ্রহ করতে পারবেন।

মন্তব্য করুন

comments