প্রেমের ফাঁদে ফেলে মুক্তিপণ দাবি, ৬ জন গ্রেফতার

29
শেয়ার

মাত্র দুই দিনে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে প্রেমের ফাঁদে ফেলে নির্যাতন চালিয়ে দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবির অভিযোগে কুমিল্লায় এক প্রতারক প্রেমিকাসহ প্রতারক চক্রের ছয় সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

কুমিল্লা জেলার দাউদকান্দি মডেল থানার গৌরীপুর পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যরা বুধবার গ্রেপ্তারদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠায়।

পুলিশ জানায়, মুরাদনগর উপজেলার পুনিয়াটন গ্রামের নবীর হোসেনের স্ত্রী দিয়ানা আক্তার সাথী মঙ্গলবার জেলার সদর দক্ষিণ উপজেলার দীঘলগাঁও গ্রামের মোখলেছুর রহমানের ছেলে দুবাই প্রবাসী ইসমাইলকে গৌরীপুর পাতাতা রেস্তোরাঁয় আমন্ত্রণ জানায়। এর দুই দিন আগে মোবাইল ফোনে তাদের আলাপ ও পরিচয় হয়। ইসমাইল তার বন্ধু রবিউল হোসেনকে সঙ্গে নিয়ে রেস্তোরাঁয় যান।

তাদের দুজনকে পাতাতা রেস্তোরাঁয় নেয়ার পর পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী সাথী ও নবীর হোসেনের সহযোগী মো. নাজমুল হক নাদিম, আতিকুর রহমান শাওন, তাহমিদুল আলম নিয়াজ এবং পাতাতা রেস্তোরাঁর ম্যানেজার আবুল কালামসহ আরো কয়েকজন কৌশলে ওই রেস্তোরাঁয় আটকে রেখে মারপিট এবং দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে।

এক পর্যায়ে প্রতারিত ওই দুই যুবক তাদের বন্ধু শাকিলকে জানান। শাকিল পুলিশের সাহায্য চান। পরে গৌরীপুর তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ মঙ্গলবার রাতে পাতাতা রেস্তোরাঁ থেকে ওই দুই যুবককে উদ্ধার করে। এ সময় ঘটনার সঙ্গে জড়িত ছয় জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গৌরীপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এএসএম আব্দুন নুর বলেন, ওই রেস্তোরাঁয় অভিযান চালিয়ে দুই যুবককে উদ্ধার এবং এর সঙ্গে জড়িত তরুণী, রেস্তোরাঁর ম্যানেজারসহ ৬ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

মন্তব্য করুন

comments