সেন্টমার্টিনে পৌনে চার লাখ পিস ইয়াবাসহ মিয়ানমার নাগরিক আটক

36
শেয়ার

সেন্টমার্টিনের পূর্ব-দক্ষিণে মৌলভীরশীল সংলগ্ন বঙ্গোপসাগর থেকে ভাসমান অবস্থায় ৩ লাখ ৬০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে কোস্টগার্ড ও বিজিবি’র সদস্যরা। এসময় মো. ফায়সাল নামে মিয়ানমারের এক নাগরিককে আটক করা হয়েছে।

বুধবার ভোর রাতে সেন্টমার্টিনের ছেড়া দ্বীপ ও টেকনাফের হ্যাচারখাল এলাকায় পৃথক অভিযান চালিয়ে এসব ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত ইয়াবার আনুমানিক মূল্য প্রায় ৪ কোটি টাকা বলে জানিয়েছেন কোস্টগার্ড ও বিজিবি।

কোস্টগার্ড চট্টগ্রাম পূর্ব জোনের গণসংযোগ কর্মকর্তা লে.কর্নেল এম আলউদ্দিন নয়ন জানান, বিপুল পরিমাণ ইয়াবা আসার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সেন্টমার্টিনের দক্ষিণপূর্ব পয়েন্টে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় কোস্টগার্ড’র উপস্থিতি টের পেয়ে পাচারকারীরা নৌকায় করে মিয়ানমার সীমান্তের দিকে পালিয়ে যায়। এসময় সাগরে ভাসমান অবস্থায় ৩ লাখ ৬০ হাজার পিস ইয়াবা পাওয়া যায়। উদ্ধার হওয়া ইয়াবার আনুমানিক মূল্য ৩ কোটি ৬০ লাখ টাকা।

টেকনাফ ২নং বিজিবি’র অধিনায়ক লে. কর্নেল এসএম আরিফুল ইসলাম জানান, বুধবার ভোর রাতে বিজিবি নিয়মিত টহল দেওয়ার সময় টেকনাফের সদর ইউনিয়নের হ্যাচারখাল এলাকার নাফ নদীতে টেকনাফমুখী একটি মাছ ধরার নৌকা দেখে ধাওয়া করে। পরে ওই নৌকা থেকে ১৫ হাজার ৮৫ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। যার আনুমানিক মূল্য ৪৫ লাখ ২৫ হাজার টাকা। এসময় মিয়ানমারের নাগরিক মো. ফয়সালকে (২০) আটক করা হয়। আটক যুবককে ইয়াবাসহ টেকনাফ মডেল থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় পৃথক দুইটি মামলা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

comments