অপহরণের দায়ে ৭ ডিবি সদস্যকে বরখাস্ত

32
শেয়ার

কক্সবাজারের টেকনাফে এক ব্যবসায়ীকে অপহরণের পর মুক্তিপণ আদায়ের অভিযোগে পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) সাতজনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে শুরু হয়েছে বিভাগীয় তদন্ত ।

বুধবার বিকেল পাঁচটার দিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কক্সবাজার জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আফরুজুল হক টুটুল।

এই সাতজনের মধ্যে দুজন উপপরিদর্শক (এসআই), তিনজন সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) ও দুজন কনস্টেবল।

এর আগে মঙ্গলবার কক্সবাজারের টেকনাফে মুক্তিপণের ১৭ লাখ টাকাসহ গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) সাত সদস্যকে আটক করে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর একটি দল।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, টেকনাফ পৌর এলাকার মধ্যম জালিয়া পাড়া গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল গফুর একজন ব্যবসায়ী। তার বাবার নাম মোহাম্মদ হোসেন। আব্দুল গফুরের বড়ভাই মোহাম্মাদ মনিরুজ্জামান দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, “আমার ভাইকে অপহরণ ও মুক্তিপণের বিষয়টি নিরাপত্তা বাহিনীকে জানিয়ে তাদের সহযোগিতা চাওয়া হয়। আমার ভাইকে মঙ্গলবার (২৪ অক্টোবর) সকালে কক্সবাজার শহর থেকে অপহরণ করে মুঠোফোনের মাধ্যমে আমাদের কাছ থেকে ৫০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবী করে অপহরণকারীরা। আমরা মুক্তিপণ দিতে রাজি হই।

পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে যথাযথ প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। আব্দুল গফুরের পরিবারকে ১৭ লাখ টাকা বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে বলেও তারা জানান।

মন্তব্য করুন

comments