খাগড়াছড়িতে স্ত্রীর হাতে স্বামী খুন

26
শেয়ার

খাগড়াছড়িতে ঘুমন্ত চাইহ্লা মারমা (৫২) নামে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা করেছে তার স্ত্রী। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে খাগড়াছড়ি জেলা সদরের ভাইবোন ছড়ার ম্রাথানাই কার্বারী পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকেই ঘাতক স্ত্রী আনু মারমা পলাতক রয়েছেন।

শুক্রবার দুপুরে পুলিশ ক্যচিং মারমা ছেলে চাইহ্লা মার্মার মৃতদেহ উদ্ধার করে।

নিহত চাইহ্লা মারমা গাড়ির হেলপার হিসেবে কাজ করতেন। দুই ছেলের মধ্যে বড় ছেলে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ছেন আর ছোট ছেলে একটি রাবার ফ্যাক্টরিতে চাকরি করেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সংসারের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে প্রায়ই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কলহ চলে আসছিল। স্ত্রী মদ পান করায় স্থানীয় কার্বারীকে একাধিকবার সালিশ করতে হয়েছিল। বৃহস্পতিবার রাতেও আনু মার্মা মদ্যপান করে স্বামীর সাথে ঝগড়া করে।এ ঘটনায় স্বামী চাইহ্লা মারমা স্থানীয় মেম্বার ও পাড়া কারবারীর নিকট স্ত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন। এ বিষয়ে ক্ষুব্ধ হয়ে স্ত্রী আনু মারমা গভীর রাতে ঘুমন্ত অবস্থায় স্বামীকে কুপিয়ে হত্যা করে। সকালের দিকে স্থানীয়রা ঘরের মধ্যে রক্তাক্ত মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দিলে খাগড়াছড়ি সদর থানা পুলিশ ম্রাথানাই কার্বারী পাড়া এলাকার বাড়ি থেকে মরদেহ উদ্ধার করে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে খাগড়াছড়ি সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তারেক মো. আবদুল হান্নান বলেন, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য খাগড়াছড়ি জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। আনু মার্মাকে গ্রেফতারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

মন্তব্য করুন

comments