ত্রাণ কার্ড পাবে রোহিঙ্গারা

28
শেয়ার

সুষ্ঠু ও সমন্বিতভাবে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম পরিচালনার উদ্দেশ্যে রোহিঙ্গাদের মাঝে পরিবার প্রতি একটি করে ত্রাণ কার্ড দেয়া হবে বলে জানিয়েছে সেনাবাহিনী। দু’এক দিনের মধ্যে কার্যক্রম শুরু হবে বলে জানা গেছে।

ত্রাণ কার্যক্রমের দায়িত্ব সেনাবাহিনী নেয়ার পর এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এ বিষয়ে শরণার্থী ক্যাম্পের দায়িত্বপ্রাপ্ত মেজর করিম বলেন,আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি প্রত্যেক পরিবারকে একটি করে ত্রাণকার্ড করে দেবো। তাহলে এক সপ্তাহের খাবারসহ যাবতীয় সহযোগিতা একসাথে দিয়ে দিতে পারবো। ফলে তাদেরকে প্রতিদিন ত্রাণের জন্য অপেক্ষায় বসে থাকতে হবে না। এতে করে দু’পক্ষেরই দুর্ভোগ কমবে।

তিনি বলেন, কার্ডের পেছনে ক্যালেন্ডার থাকবে, ত্রাণ গ্রহণের পর প্রতিটি কার্ডে তা লিপিবদ্ধ থাকবে।

ত্রাণ গ্রহণে নিয়োজিত সেনা সদস্যরা বলেন, খাদ্য, ওষুধ, গৃহনির্মাণ সামগ্রীসহ নানা পণ্য আসছে রোহিঙ্গাদের জন্য।এর মধ্যে রয়েছে- চাল, চিড়া, গুড়, ডাল, তেল, আলু, পেঁয়াজ, মসলা, বিরিয়ানির প্যাকেট, আপেল, গুঁড়োদুধ, ওষুধ, বিস্কুট, বাসনপত্র ও ত্রিপল। আবার অনেকে নগদ টাকাও দিচ্ছেন।

এছাড়া রোহিঙ্গাদের আবাসনের ব্যবস্থা করতে ইতোমধ্যে ২০০ একর জমি চিহ্নিত করা হয়েছে। ওই জমিতে ১৪শ’ শেড নির্মাণ করা হবে। এসব শেডে ৮৪ হাজার শরণার্থী পরিবারের সংকুলান হবে। প্রতি পরিবারে ৬ জন হিসেবে ৫ লাখ ৪ হাজার রোহিঙ্গা নাগরিক এসব শেডে থাকতে পারবেন।

সেনা বাহিনীর তত্ত্বাবধানে শিগগিরই এসব শেড নির্মাণ কাজ শুরু হবে। তবে এই মুহূর্তে ত্রাণ বিতরণকে অগ্রাধিকার দেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে সেনাসূত্র।

মন্তব্য করুন

comments