X

শীর্ষ ইয়াবা ব্যবসায়ী ভুট্টো ৮ সহযোগীসহ গ্রেফতার

কক্সবাজারের সীমান্ত উপজেলা টেকনাফের তালিকাভুক্ত শীর্ষ ইয়াবা ব্যবসায়ী এবং মানবপাচারকারী নুরুল হক ওরফে ভুট্টোকে তার ৮ জন সহযোগী সহ গ্রেফতার করেছে ক্রাইম ইনভেন্টিগেসন ডিপার্টমেন্ট (সিআইডি)।

সোমবার চট্টগ্রামের চন্দনাইশ থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারে সময় তার কাছ থেকে লক্ষাধিক টাকা এবং একাধিক বিভিন্ন কোম্পানির সিম পাওয়া যায়।
ভুট্টো কক্সবাজার ছয় সাংবাদিকের উপর হামলা মামলার প্রধান অসামি।২০১৬ সালে ১৩ মে সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে ভুট্টো এবং তার বাহিনীর হামলার শিকার হন কক্সবাজারের কর্মরত ছয়জন টিভি সাংবাদিক।

তাদেরকে মঙ্গলবার টেকনাফ থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

সোমবার চট্টগ্রামের চন্দনাইশ থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। ভুট্টোর দেয়া স্বীকারোক্তিমতে টেকনাফ সীমান্ত এলাকায় অভিযান চালিয়ে তার আরো ৮ জন সহযোগীকে গ্রেফতারের পর তাদের ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করছে বলে জানান সিআইডি।

সিআইডি সাইবার ক্রাইম এবং মানি লন্ডারিং ইনভেস্টিগেসন সেন্টারের বিশেষ পুলিশ সুপার মোল্লা নজরুল ইসলাম মঙ্গলবার দুপুরে কক্সবাজার পুলিশ সুপার কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে বলেন, এখন থেকে সিআইডি টেকনাফের মাদক এবং চোরাকারবারীদের ধরতে কাজ করছে। গ্রেফতারকৃত ভুট্টো স্বরাষ্ট্রমন্ত্রনালয়ের তালিকাভুক্ত ইয়াবা ব্যবসায়ী এবং মানব পাচারকারী। তার বিরুদ্ধে টেকনাফসহ বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। গ্রেফতারের সময় তার কাছ থেকে লক্ষাধিক টাকা এবং একাধিক বিভিন্ন কোম্পানির সিম উদ্ধার করা হয়।

সুপার মোল্লা নজরুল ইসলাম আরো বলেন, “আমরা খোঁজ নিয়ে জেনেছি বাংলাদেশে শীর্ষ ১০ জন ইয়াবা ব্যবসায়ীর মধ্যে ভুট্টো একজন। সারা দেশেই বিস্তৃত তার ইয়াবা ব্যবসার নেটওয়ার্ক। এই জন্য সারাদেশে তার সিন্ডিকেটের সদস্য রয়েছে। ইয়াবা পাচার করে আয় করা বিপুল টাকা বিদেশ পাচার করেছে ভুট্টো।”

ভুট্টোর বিরুদ্ধে ইয়াবা, মানব পাচারসহ অসংখ্য অপরাধের অভিযোগ রয়েছে ।এলাকায় ত্রাস হিসেবে পরিচিত ছিলো সে। এক সময়কার দিনমজুর ভুট্টো ইয়াবা ব্যবসা এবং মানবপাচারের সাথে জড়িয়ে হয়ে যায় কোটিপতি। এসময় এলাকায় তার নিজস্ব বাহিনী গড়ে তুলেন। অন্যের জমি দখল, লুটপাট ,মানুষদের হয়রানিসহ নানা নানা ধরনের অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

মন্তব্য করুন

comments