X

কাঠমুণ্ডুতে বাংলাদেশী বিমান বিধ্বস্ত

নেপালের রাজধানী কাঠমুণ্ডু ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে (টিআইএ) ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের যাত্রীবাহী একটি বিমান বিধ্বস্ত হয়েছে।

আজ সোমবার নেপালের স্থানীয় সময় দুপুর ২টা ২০ মিনিটে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছে।

দুর্ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৩০ জন আরোহীকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানা গেছে। উদ্ধারকৃতদের বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।ঘটনাস্থল থেকে একজন সাংবাদিক জানিয়েছেন, বাকিদের উদ্ধারে দমকল বাহিনী ও নেপালি সেনাবাহিনী তৎপর চালাচ্ছে।

বার্তা সংস্থা এএফপি জানাচ্ছে, ধ্বংসস্তুপ থেকে বেশ কিছু মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

নেপাল সরকারের একজন মুখপাত্র নারায়ন প্রাসাদ দুয়াদি এএফপিকে বলেন, “আমরা ধ্বংসস্তুপ থেকে আহতদের এবং মৃতদেহ উদ্ধার করেছি”।

ইউএস বাংলার ড্যাশ কিউ-৪০০ বিমানটি আজ সোমবার ঢাকা থেকে রওনা দিয়ে দুপুর ২টা ২০ মিনিটে কাঠমান্ডু বিমানবন্দরে অবতরণের সময় রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়লে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
ধারণা করা হচ্ছে পাইলট ল্যান্ডিংয়ের সময় গতি কন্ট্রোল করতে না পারায় এটি ছিটকে পড়ে। ফ্লাইটটিতে ৬৭ জন যাত্রী এবং চারজন ক্রু ছিল বলে জানা গেছে।

ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবদুল্লাহ আল মামুন সাড়ে তিনটার দিকে জানান, তারা ত্রিভুবন বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা চালাচ্ছে।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম দ্য হিমালয়ান টাইমস বলছে, দুর্ঘটনার পরপরই বিমানবন্দরের নিজস্ব দমকলকর্মীসহ উদ্ধারকর্মীরা কাজ শুরু করেন। তাদের সঙ্গে যোগ দেয় সেনাবাহিনী। এখনও বিধ্বস্ত প্লেনটিতে আগুন জ্বলছিল।

বিমানবন্দরে অ্যাম্বুলেন্স ছুটোছুটি করতেও দেখা গেছে। প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে এএনআই জানায়, অনেককে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

এদিকে দুর্ঘটনার পর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কোনো প্লেন অবতরণ কিংবা ছেড়ে যায়নি। নেপালের বিমান মন্ত্রণালয়ের একজন মুখপাত্র জানান, শিডিউল অনুযায়ী অনেক প্লেন ত্রিভুবনে অবতরণ করতে পারেনি। ওমান এয়ার, কাতার এয়ারওয়েজ এবং ফ্লাই দুবাই অন্য দেশে অবতরণ করেছে।

আর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে প্লেন ওঠা-নামা বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, ইউএস বাংলা ফ্লাইটটি বিমানবন্দরে রানওয়েতে নামার পর চলার সময় একটি মোড় ঘুরতেই দুর্ঘটনায় পতিত হয়। এ সময় বিমানবন্দরের কাছেই একটি ফুটবল মাঠে বিধ্বস্ত হয় এটি। এতে বিমানটিতে আগুন ধরে যায়।

মন্তব্য করুন

comments