বাংলাদেশের প্রায় ৮০ লাখ লোক ‘সিওপিডি’ তে আক্রান্ত

98
শেয়ার

সিওপিডি অর্থাৎ ক্রনিক অবসট্রাকটিভ পালমোনারি ডিজিজেস।
সহজ কথায় সিওপিডি ফুসফুসের একটি দীর্ঘমেয়াদি জটিল রোগ। যত দিন যাচ্ছে ভয়াবহ হয়ে উঠছে এই রোগ ৷ দেশি-বিদেশি চিকিৎসকদের কথা অনুযায়ী, হৃদরোগ, উচ্চরক্তচাপ, স্ট্রোক ইত্যাদি মারাত্মক রোগের অন্যতম প্রধান কারণ ধূমপান।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, পৃথিবীতে আনুমানিক ৩০ কোটি মানুষ এই রোগে আক্রান্ত। বাংলাদেশে আক্রান্তের হার আনুমানিক ৮০ লাখ। রোগটি বিশ্বব্যাপী মৃত্যুর চতুর্থ প্রধান কারণ। ধূমপান ছাড়াও জীবাশ্ম-জ্বালানী হতে উৎপন্ন ধোঁয়া, যেমন কয়লা, কাঠ, শুকনো পাতা ইত্যাদি, ধুলোবালি ও বায়ুদূষণ, কলকারখানা ও যানবাহনের উৎপন্ন ধোঁয়া ও রাসায়নিক পদার্থ, দীর্ঘমেয়াদি শ্বাসকষ্ট, কাশি, কফ ইত্যাদি এ রোগের প্রধান লক্ষণ। এ রোগ সম্পূর্ণভাবে নির্মূল হয় না। তাই প্রতিরোধই সর্বোত্তম পন্থা।
এজন্য চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ইনহেলার ও অন্যান্য ওষুধ সেবনের মাধ্যমে এ রোগ নিয়ন্ত্রণসহ ধুমপান পরিহার, ধুলোবালি ও ধোঁয়া যথাসম্ভব এড়িয়ে চলা ও নিয়মিত ব্যায়াম করা প্রয়োজন।

মন্তব্য করুন

comments