X

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর দাবি,রাখাইনে মিলছে হিন্দুদের গণকবর

মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশে হিন্দুদের একটি গণকবরের সন্ধান পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে দেশটির সেনাবাহিনী। সেনাবাহিনীর এক বিবৃতিতে বলা হয়, রোহিঙ্গা জঙ্গিরা ওই হিন্দুদেরকে হত্যা করেছে।

উত্তর রাখাইনের ইয়ে ব কিয়া গ্রামে এই গণকবর মিলেছে বলে তথ্য সেনাবাহিনীর। গ্রামটির পাশেই রয়েছে হিন্দু ও মুসলিম রোহিঙ্গা অধ্যুষিত আরেক গ্রাম খা মং সিয়েক।

মিয়ানমার সেনাপ্রধানের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে বলা হয়, “নিরাপত্তারক্ষীরা একটি গণকবর খুঁজে বের করেছে, যেখান থেকে ২৮ হিন্দুর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এদের সবাইকে চরমপন্থি বাঙালি জঙ্গিদল আরসা নির্মমভাবে হত্যা করেছে।”

সেনাবাহিনী বলছে, গণকবরটিতে পাওয়া লাশের মধ্যে ২০ জনই নারী। আটজন পুরুষ, যাদের মধ্যে রয়েছে দশ বছরের নিচের ছয়টি শিশুও।

এএফপির বরাত দিয়ে হিন্দুস্তান টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, সেখানে প্রতিটি গর্তে ১০-১৫ জনকে কবর দেওয়া হয়েছে।

মিয়ানমারের সেনাবাহিনীপ্রধানের ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, যে হিন্দুদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে তাদের হত্যা করেছে আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মির (আরসা) জঙ্গিরা। বিদ্রোহী সংগঠনটির সদস্যদের চরমপন্থি বাঙালি সন্ত্রাসী বলেও আখ্যায়িত করা হয়েছে ওই বিবৃতিতে।

আরসা’র হামলার পরপরই গত একমাস ধরে মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের মুসলিমদের নিয়ে যে সংকট চলছে তার সূত্রপাত ঘটে।

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

মন্তব্য করুন

comments