কাতার সৌদী সংকট মধ্যস্থতায় কুয়েত!

51
শেয়ার

সৌদি আরবের নেতৃত্বে ছয় আরব দেশের কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করার ঘোষণায় বিপাকে পড়া কাতারের পাশে দাঁড়িয়েছেন কুয়েতের আমির শেখ সাবাহ আল হামাদ আল জাবের আল সাবাহ।

সঙ্কট মোকাবেলায় কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানি তার শরণাপন্ন হলে সৌদি আরবের সঙ্গে মধ্যস্থতা করার উদ্যোগ নেন কুয়েতের আমির।
মঙ্গলবার সৌদি গিয়ে বাদশা সালমানের সঙ্গে শেখ সাবাহ কাতার সঙ্কট নিয়ে কথা বলবেন বলেও জানা গেছে।

গালফ আরব কর্মকর্তা এবং কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ বিন আবদুল রহমান আল থানির বরাতে সংবাদ সংস্থা রয়টার্স এ খবর জানিয়েছে।

জানা গেছে, কুয়েতের আমিরকে মধ্যস্থতা করার সুযোগ দিতে কূটনৈতিক বিচ্ছিন্নতা নিয়ে মঙ্গলবার দেশবাসীর উদ্দেশে ভাষণ দেয়ার কথা থাকলেও তা স্থগিত করেছেন কাতারের আমির।

সোমবার কাতারের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করার ঘোষণা দেয় সৌদি আরব, মিশর, সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন, ইয়েমেন এবং লিবিয়া।

কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আল জাজিরাকে বলেছেন, সোমবার রাতে কাতারের আমির টেলিফোনে কুয়েতের আমিরের সঙ্গে কথা বলেন। এরপর তিনি জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেয়ার কর্মসূচি স্থগিত করেন।

এছাড়া দোহা প্রতিবেশীদের কূটনৈতিক বিচ্ছিন্নতার সিদ্ধান্তের নিন্দা না করারও সিদ্ধান্ত নেয় বলেও জানান কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

২০১৪ সালে আরব উপদ্বীপের রাষ্ট্রগুলোর মধ্যে বিভক্তির ঘটনার সময় কুয়েতের আমির গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। আর কাতারের আমিরও তাকে পিতার মতো সম্মান করেন।

চলমান সঙ্কটের পুরো চিত্র স্পষ্ট না হওয়ার আগ পর্যন্ত কুয়েতের আমিরের ইচ্ছাকে সম্মান জানিয়ে কোনো বক্তব্য দেয়া এবং পাল্টা পদক্ষেপ নেয়া থেকে কাতারের আমির বিরত থাকবেন বলে জানান দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

তিনি বলেন, কাতার মনে করে প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে সংলাপের মাধ্যমেই মতপার্থক্য ঘুচবে। এজন্য কাতার প্রতিবেশীদেরকে মতবিনিময় করারও প্রস্তাব দিয়েছে।

মন্তব্য করুন

comments