ধর্ষকগুরুর গুনধর কন্যা হানিপ্রীত গ্রেপ্তার

159
শেয়ার

ভারতের আলোচিত ধর্ষকগুরু রাম রহিম সিংয়ের পালিত কন্যা হানিপ্রীত সিংকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মুম্বাই বিমানবন্দর থেকে রবিবার তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।তার বিরুদ্ধে আগেই লুক আউট নোটিশ জারি ছিল। এ কারণে হানিপ্রীতের খোঁজে তৎপর ছিল পুলিশ।

জানা গেছে, অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার পরিকল্পনা ছিল হানিপ্রীতের। তিনি নার্সের পোশাকে ছিলেন। চুলে সাদা রং করেছিলেন তিনি। কিন্তু বিমান বন্দর থেকে পঞ্জাব পুলিশ ও মুম্বাই পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে।হানিপ্রীতের পাসপোর্ট বাজেয়াপ্ত করে নেয়া হয়েছে। সেখানে তার নাম লেখা রয়েছে প্রিয়াঙ্কা তানেজা। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে এখনো নিশ্চিত করে কিছু জানা যায়নি।শোনা যাচ্ছে, তাকে সোমবারই পঞ্জাবে নিয়ে যাওয়া হবে। তারপর তাকে আদালতে তোলা হবে। তার বিরুদ্ধে উত্তেজনা ও সহিংসতা ছড়ানোর অভিযোগ রয়েছে।

এদিকে হানিপ্রীতের স্বামী বিশ্বাস গুপ্তা দাবি করেন যে, হানিপ্রীতের সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক রয়েছে ধর্ষক রাম রহিমের। নিজের পাপ ঢাকতেই হানিপ্রীতকে দত্তক নিয়েছিল সে। এ নিয়ে ২০১১ সালে বিশ্বাস গুপ্তা মামলাও করেছিলেন বলে জানিয়েছেন সংবাদমাধ্যমের কাছে।

রাম রহিমের জেলে যাওয়ার দিন তার সঙ্গে ছিলেন হানিপ্রীত। এমনকী জেলেও হানিপ্রীতকে নিয়ে যাওয়ান আবদার করেন রাম রহিম।তিনি অনুরোধ করেছিলেন, জেলের কুঠুরিতে পালিত কন্যা হানিপ্রীতকেও থাকতে দেয়া হোক। এই মর্মে আবেদনও করা হয়েছিল সিবিআই আদালতে। এই দাবির পক্ষে যুক্তিও ছিল বেশ জোরাল। দীর্ঘ দিন ধরে পীঠের ব্যথায় ভুগছে রাম রহিম। পালিত মেয়ে হানিপ্রীতই সব থেকে ভালো দেখাশোনা করতে পারবে তাকে। কারণ হানিপ্রীত একজন আকুপাংচার বিশেষজ্ঞ। প্রয়োজনে রাম রহিমকে ম্যাসাজ করে দিতে পারবে পালিত কন্যা হানিপ্রীত।

তবে ধর্ষক রাম রহিম এবং মেয়ে হানিপ্রীতের দাবি খারিজ করে দেয় সিবিআই আদালত।

মন্তব্য করুন

comments