আমেরিকার কৌশলে উত্তর কোরিয়াকে জব্দ করেছে চীন

57
শেয়ার

আমেরিকা-উত্তর কোরিয়ার সম্পর্কের টানাপোড়েনের প্রভাব পড়েছে চীনেও।যেভাবে দিনের পর দিন ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করে চলেছে কিম জং-উনের দেশ, তা নিয়ে আগেই সরব হয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প৷ উত্তর কোরিয়ার ভূমিকা তৃতীয় বিশ্ব যুদ্ধের হুমকি বলেও বার বার দাবি করেছে আমেরিকার প্রশাসন৷

মূলত আমেরিকার উদ্যোগেই জাতিসংঘ উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে৷এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে এবার উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্কে কিছুটা কাট-ছাঁট করল চিন৷ উত্তর কোরিয়া থেকে লৌহ আমদানি উপর জারি হল নিষেধাজ্ঞা৷

প্রতি বছর উত্তর কোরিয়া থেকে বিপুল পরিমাণে লৌহ আমদানি করে চীন।তবে, আপাতত সেই আমদানীতে লাগাম টানতে চলেছে বেইজিং৷ সোমবার সেই কথা উত্তর কোরিয়াকে জানিয়েও দিয়েছে জি জিনপিংয়ের দেশ৷আগামীকাল থেকে নতুন করে কোনও লৌহ আমদানি করা হবে না বলে সাফ জানিয়ে দিল চিন৷জি জিনপিংয়ের দেশের এই সিদ্ধান্তের জেরে আগামী দিনে বিপুল আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়বে উত্তর কোরিয়া৷ প্রতিনিয়ত যুদ্ধের হুমকি দেওয়া কিমকে এইভাবেই জব্দ করা যাবে বলে মনে করা হচ্ছে৷

এই বিষয়ে চীনের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, কয়লা, লোহা, লৌহ আকরিক এবং সামুদ্রিক মাছসহ একাধিক দ্রব্য আমদানির উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে৷ আগামীকাল থেকেই এই সমস্ত বিষয়ে আমদানি পুরোপুরিভাবে বন্ধ করে দেওয়া হবে৷ এদিকে ইতিমধ্যেই গত ফেব্রুয়ারি মাসেই কয়লার আমদানির উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে চীন৷

নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য চীনের এই সিদ্ধান্ত আন্যান্য সদস্যরাও মেনে নেয়৷ আমেরিকার চাপেই মূলত এই কৌশল নিয়েছে চীন।বার্ষিক একশ কোটি ডলার রাজস্ব থেকে উত্তর কোরিয়াকে বঞ্চিত করাই এর প্রধান লক্ষ্য৷ মত আন্তর্জাতিক কূটনৈতিক মহলের৷

মন্তব্য করুন

comments