X

বিল গেটসকে টপকে শীর্ষ ধনী জেফ বেজোস

ছবিঃ সংগৃহিত

মাইক্রোসফটের সহপ্রতিষ্ঠাতা বিল গেটসকে টপকে বিশ্বের শীর্ষ ধনীর খেতাব নিজের করে নিয়েছেন ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান অ্যামাজনের প্রতিষ্ঠাতা জেফ বেজোস।

বেজোস যুক্তরাষ্ট্রের ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান অ্যামাজনের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও)। ২ বছর ধরেই বিশ্বের শীর্ষ ধনীর খেতাবটি নিয়ে রীতিমতো রশি টানাটানি চলছিল ২০১৩ সাল থেকে খেতাবটি ধরে রাখা বিল গেটস এবং উদীয়মান বিজনেসম্যান অ্যামাজনের প্রতিষ্ঠাতা জেফ বেজোসের মধ্যে।

সর্বশেষ চলতি বছরের প্রথমভাগে ফোর্বস ঘোষিত শীর্ষ ধনীর তালিকাতেও শীর্ষ ধনীর খেতাব থেকে মাত্র ৫০০ কোটি (পাঁচ বিলিয়ন) ডলার দূরে ছিলেন বেজোস। কিন্তু এবার ফোর্বসের জরিপে গেটসকে টপকে বিশ্বের শ্রেষ্ঠ ধনীর মুকুট ছিনিয়ে নিলেন অ্যামাজনের সিইও ৫৩ বছর বয়েসী জেফ বেজোস।

তার বর্তমান সম্পদের পরিমাণ ৯১ দশমিক ৪ বিলিয়ন ডলার বা ৭০ বিলিয়ন ইউরো। বাংলাদেশি টাকায় যা দাঁড়ায় সাত লাখ সাড়ে ৩১ হাজার কোটি টাকা। আর বিল গেটসের সম্পদের পরিমাণ ৯০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

বর্তমানে অ্যামাজন ইন কর্পোরেশন বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় ই-কমার্স ও ক্লাউড কম্পিউটিং কোম্পানি হিসেবে পরিচিত। ব্যবসা বিস্তারে প্রতিনিয়ত নতুন নতুন উদ্যোগ নিচ্ছেন বেজোস। তাই তার ও অ্যামাজনের সম্পদ বাড়ছে দ্রুত।

বেজোসের জন্ম মেক্সিকোর আলবার্কে ১৯৬৪ সালে। ১৯৯৪ সালে জেফ বেজোসের হাত ধরে যাত্রা শুরু হয়েছিল অ্যামাজনের। শুরুতে অনলাইনে বই বিক্রি করত কোম্পানিটি। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে নানা খাতে ডালপালা মেলেছে যুক্তরাষ্ট্রের সিয়াটলভিত্তিক এ কোম্পানি।

অন্যদিকে বিশ্বের শীর্ষ ধনী ৬১ বছর বয়সী বিল গেটস ২০০০ সালে মাইক্রোসফট প্রধানের পদ থেকে অবসর নিয়েছেন। এখন তিনি তার প্রতিষ্ঠিত ‘বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন’ নিয়ে মানব কল্যাণের উদ্যোগ ও কাজে ব্যস্ত। এর মধ্যেও বাড়ছে তার সম্পদ। তবে তিনি সম্পদ বাড়ানোর চাইতে অর্থের ব্যবহার করে মানব কল্যাণে বেশি মনযোগী।

আর এই মানবকল্যানের অংশ হিসেবে ২০১০ সালে বিল গেটস বিশ্বের তখনকার দ্বিতীয় শীর্ষ ধনী ওয়ারেন বাফেটের সঙ্গে একটি ‘ব্যক্তিগত অঙ্গীকার’ করেছিলেন। যাতে ওই দুই ধনকুবের তাঁদের জীবদ্দশায় মোট সম্পদের অর্ধেক মানবকল্যানে ব্যায় করার উদ্যোগ নেবেন বলে ঘোষণা দিয়েছিলেন। আর সেই অঙ্গীকার বাস্তবায়নে বিশ্বের বিভিন্ অনগ্রসর দেশে স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও চিকিৎসাসেবায় কাজ করছেন এই দুই মহৎপ্রাণ ধনী।

মন্তব্য করুন

comments