X

পাঁচতারা হোটেলের নারী কর্মীর শাড়ি খুলে ফেলার চেষ্টা ম্যানেজারের (ভিডিও)

ছবিঃ সংগৃহিত

ভারতে একটি পাঁচতারা হোটেলের এক নারী কর্মীর শাড়ি টেনে খুলে ফেলার চেষ্টা চালিয়েছেন হোটেলটির সিকিউরিটি ম্যানেজার। দিল্লির ওই হোটেলের এই যৌন হয়রানির সিসিটিভি ফুটেজ প্রকাশিত হয়েছে।

এছাড়া ৩৩ বছর বয়সী ওই নারী কর্মীকে দুই দফা গাড়িতে জোর করে তোলারও চেষ্টা চালান পবন ডাহিয়া নামের ওই সিকিউরিটি ম্যানেজার। এ ঘটনায় দুজনকেই চাকরিচ্যুত করা হয়েছে।

যৌন হয়রানির শিকার ওই নারী এনডিটিভি-কে জানান, অফিসের কাজ শেষে বাড়ির পথে রওনা দেওয়ার সময় তার শাড়ি টেনে খুলে ফেলেন ওই হোটেল কর্মকর্তা। সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায়, সেই নারী তার শাড়ি ধরে রাখতে চাইছেন।

ওই সময় কাছে থাকা হোটেলের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা তাকে রক্ষা করার চেষ্টা চালাননি। বরং তিনি সেই কক্ষ ত্যাগ করেন। হোটেলে ব্যর্থ হওয়ার পর তাকে গাড়িতে তুলে নেওয়ার জন্য দুই দফা চেষ্টা চালায় অভিযুক্ত ব্যক্তি।

ঘটনাটি ঘটেছিল গত ২৯ জুলাই। ওই নারী কর্মী বলেন, ‘সেদিন ছিল আমার জন্মদিন। সিকিউরিটি বস তার ক্রেডিট কার্ড বের করলেন এবং আমাকে জিজ্ঞেস করলেন আমি কোনো উপহার চাই কিনা। বস আমাকে বসতে বললেন।’

‘আমি না বসলে তিনি আমাকে তার দিকে টেনে নিয়ে যান এবং আমার শাড়ি খুলে ফেলেন। তিনি অন্য সহকর্মীদের সেই রুম থেকে চলে যেতে বললেন’ যোগ করেন নিগৃহীত ওই নারী কর্মী।

শাড়ি খোলার সঙ্গে সঙ্গে ওই নারীকে ‘শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনের’ জন্য চাপাচাপি করছিল পবন ডাহিয়া। এমনকি নারী কর্মীকে প্রস্তাব দেওয়া হয় সে যেন হোটেলে তার সঙ্গে রাত কাটান।

সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায়, সিকিউরিটি বস যখন ওই নারীর শাড়ি ধরে টানাটানি করছিল, তখন তিনি নিজের শাড়ি চেপে ধরে রাখার চেষ্টা করছিলেন।

ঘটনার রাতে হোটেলের মানবসম্পদ বিভাগে ঘটনাটির কথা জানান ভুক্তভোগী। কিন্তু কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি। স্বামীর পরামর্শে গত ১ আগস্ট পুলিশের কাছে একটি এফআইআর দায়ের করেন।

বৃহস্পতিবার বেলা ১টার সময় যখন কর্মস্থলে যান, তখন তার ডিউটি ম্যানেজার তাকে এইচআর ডিপার্টমেন্টে যেতে বলেন। সেখানে ৪০ মিনিট তাকে বসিয়ে রেখে হাতে চাকরিচ্যুতির নোটিশ ধরিয়ে দেওয়া হয়। যে সহকর্মী সিসিটিভি ফুটেজ বের করে দিতে সাহায্য করেছিলেন তাকেও চাকরিচ্যুত করা হয়।

ঘটনাটির বিচার না করে ভুক্তভোগী সেই নারী কর্মী ও অভিযুক্ত পবন ডাহিয়াকে চাকরিচ্যুত করে হোটেল কর্তৃপক্ষ। কর্মস্থলে ন্যায়বিচার না পেয়ে দিল্লি পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছেন সেই নারী।

মন্তব্য করুন

comments