আগ্রাবাদে র‌্যাবের সাথে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবলীগ নেতা নিহত

107

নগরের আগ্রাবাদ এলাকায় র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) সদস্যদের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ স্থানীয় যুবলীগ নেতা খোরশেদ আলম (৩৬) নিহত হয়েছেন।

রোববার (১৩ অক্টোবর) রাত সাড়ে ৯টার দিকে আগ্রাবাদের ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের পাশে এ ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে র‍্যাব।

নিহত খোরশেদ আলম আগ্রাবাদের পাঠানটুলী এলাকার শফিক আহমেদের ছেলে। তিনি পাঠানটুলী ওয়ার্ড যুবলীগের সহ- সভাপতি ছিলেন বলে স্থানীয়রা জানায়।

খুরশীদকে পিস্তলসহ আটকের পর তাকে নিয়ে অস্ত্র উদ্ধারে গেলে তার সঙ্গীদের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধ’ হয় বলে জানান র‌্যাব-৭ এর উপ-অধিনায়ক স্কোয়াড্রন লিডার সাফায়াত জামিল ফাহিম।

তিনি সংবাদ মাধ্যমকে জানান, আগ্রাবাদ কমার্স কলেজ এলাকা থেকে রাত ৯টার দিকে একটি বিদেশি পিস্তলসহ খোরশেদকে আটক করা হয়। ওই সময় সে তার আস্তানায় আরও অস্ত্র থাকার তথ্য দিলে র‌্যাব অভিযানে গেলে খোরশেদের লোকজন র‌্যাব সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। আত্মরক্ষার্থে র‌্যাব সদস্যরাও পাল্টা গুলি চালায়। পরে ঘটনাস্থলে খোরশেদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে দুটি বিদেশি পিস্তল ও ১২ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।

নিহত খোরশেদের বিরুদ্ধে হত্যাসহ বিভিন্ন অভিযোগে অন্তত ৮টি মামলা রয়েছে বলে তিনি জানান তিনি।

মন্তব্য করুন

comments