নগরীর দেওয়ানহাট এলাকায় বাসচাপায় মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু

56

নগরীর কদমতলী ফ্লাইওভারের প্রবেশপথে বাসচাপায় মোটর সাইকেল আরোহী এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। গুরুতর আহত হয়েছেন আরও একজন।

গতকাল মঙ্গলবার দুপুর দেড়টার দিকে নগরীর ডবলমুরিং থানার ধনিয়ালা পাড়া এলাকায় বায়তুশ শরফ মাদরাসার সামনে এই দুর্ঘটনা ঘটে। পুলিশ বাস এবং মোটরসাইকেলটি জব্দ করেছে। তবে পালিয়ে যাওয়ায় বাস চালককে আটক করা সম্ভব হয়নি। এসময় ক্ষুব্ধ পথচারীরা সড়ক অবরোধ করে বাসটি ভাঙচুর করেন।

পুলিশ জানায়, দ্রুতগামী বাসটি ফ্লাইওভারে উঠার সময় মোটর সাইকেলটিকে চাপা দিলে সেটি বাসের পেছনে আটকে যায়।

নিহত রতন দেবনাথ (৩০) ফেনী জেলার সোনাগাজী উপজেলার চৌমুহনী এলাকার তরুণ কুমার দেবনাথের ছেলে। রতন ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটের এস আলম বাসের সুপারভাইজার ছিলেন এবং পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সদস্য। নগরীর হালিশহর থানার ফইল্যাতলী বাজার এলাকায় পরিবার নিয়ে থাকতেন তিনি।

আহত জালাল আহমেদ (২৫) নগরীর ঈদগাহ বৌবাজার এলাকার নাছির আহমেদের ছেলে। তিনি পরিবহন ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, দেওয়ানহাট ফ্লাইওভার থেকে নামার সময় পোস্তার পাড় মোড়ের সামনে কভার্ড ভ্যান থাকায় মোটর সাইকেলের স্টার্ট বন্ধ করে দাঁড়ায় চালক রতন কুমার। এসময় নোয়াখালী থেকে চট্টগ্রাম আসা বাঁধন পরিবহনের একটি বাস ফ্লাইওভার থেকে নামার সময় এ মোটর সাইকেলকে ধাক্কা দেয়। এতে মোটর সাইকেল থেকে ছিটকে পড়ে বাসের চাকায় পিষ্ট হন চালক রতন এবং পেছনের সিটে থাকা জালালও সড়কে পড়ে যান। পরে স্থানীয়রা দুজনকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রতনকে মৃত ঘোষণা করেন। তবে জালাল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই আলাউদ্দীন তালুকদার জানান, ‘নিহত রতন কুমার মোটরসাইকেল চালাচ্ছিলেন ও আহত জালাল আহমেদ পেছনে ছিলেন। পেছন দিক দিয়ে একটি বাস মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দিলে দুজনই গুরুতর আহত হন। পরে তাদের চমেক হাসপাতালে আনা হলে চিকিৎসক রতন কুমারকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত জালাল হাসপাতালে ভর্তি আছেন।’

মন্তব্য করুন

comments