অভিনব কায়দায় ছিনতাই

130
শাহাদাত হোসেন ওরফে সাজ্জাদ

চট্টগ্রামে শাহাদাত হোসেন নামে অভিনব কায়দায় ছিনতাই করা এক ছিনতাইকারীকে অস্ত্রসহ গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত সোমবার রাতে নগরীর কোতোয়ালি থানার জুবিলী রোডের আমতল এলাকার হোটেল সাফিনার সামনে থেকে অস্ত্রসহ তাকে আটক করা হয়।

শাহাদাত হোসেন ওরফে সাজ্জাদ (২৬) পটিয়া উপজেলার হরিণখাইন গ্রামের মো. ইসমাইলের ছেলে।

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন জানান, ভাঙা একটি স্মার্টফোন নিয়ে আমতল, আন্দরকিল্লা, টেরিবাজার, কাজীর দেউড়ি ভিআইপি টাওয়ারসহ বিভিন্ন জনাকীর্ণ এলাকায় সবসময় চলাফেরা করে সে। বোকাসোকা কাউকে দেখলেই ইচ্ছাকৃতভাবে ধাক্কা দেয় এবং ভাঙা মোবাইলটি নীচে ফেলে দেয়। এরপর মোবাইলটি তুলে ভাঙার জন্য পথচারিকেই দোষারোপ করে মোবাইলটি মেরামত কিংবা ক্ষতিপূরণ দাবি করতে থাকে। একপর্যায়ে সেখানে উপস্থিত বাকিদের সহযোগিতায় মোবাইল মেরামত করার নামে সিএনজিতে তুলে সুযোগ বুঝে নিরিবিলি কোন জায়গায় নামিয়ে অস্ত্রের মুখে কেড়ে নেয় সবকিছুই। থার্টি ফার্স্ট নাইটেও এমন ‘ঝগড়া’ করার পরিকল্পনা ছিল সাজ্জাদের। তবে তার পরিকল্পনা বাস্তবায়নের আগেই তাকে আটক করে পুলিশ। এসময় তার কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় একটি এলজি, দুই রাউন্ড কার্তুজ এবং একটি ভাঙা মোবাইল। পারভেজ নামের আরেক যুবকককে নিয়ে শাহাদাত এইভাবে ছিনতাই করে আসছিল।তার বিরুদ্ধে কোতোয়ালি ও পটিয়া থানায় চারটি মামলা রয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

এসময় তার সহযোগী পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। তবে তাকে আটকেও অভিযান অব্যাহত আছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ওসি মহসিন বলেন, চট্টগ্রামে নতুন এই কৌশলে ছিনতাইয়ে নেমেছে দুর্বৃত্তরা। গত এক সপ্তাহে তারা এ ধরনের কয়েকটি কাজ করেছে বলে আমাদের কাছে অভিযোগ এসেছে।

মন্তব্য করুন

comments