‘ভাসমান ১৫ লাখ মানুষের টয়লেট, গোসল ও সুপেয় পানির ব্যবস্থা করবে চসিক’

27
শেয়ার

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, তার মেয়াদের মধ্যে নগরীর সর্বত্র আধুনিক টয়লেট নির্মাণ করা হবে। ভাসমান প্রায় ১৫ লাখ মানুষের টয়লেট, গোসল ও সুপেয় পানি পান করার সুযোগ সৃষ্টি করবে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন।

তিনি বলেন, প্রতিদিন সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত নগরীতে প্রায় ১০ থেকে ১৫ লাখ মানুষ তাদের দৈনন্দিন কার্যক্রম সমাপ্ত করে নিজ নিজ গন্তব্যে চলে যায়। বিশাল এই জনগোষ্ঠীর সুবিধার্থে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন পাবলিক টয়লেট নির্মাণ কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

গতকাল বুধবার দুপুরে ভাসমান নগরবাসীর টয়লেট, গোসল ও সুপেয় পানি পানসহ নানা সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে নগরীর লালদীঘির দক্ষিণ-পূর্ব পাড়ে এবং কে সি দে রোডস্থ টিএনটির দেয়ালের বাইরে নিজস্ব জায়গায় নির্মিত আধুনিক দু’টি টয়লেট উদ্বোধনকালে তিনি এ কথা বলেন।

ওয়াটার এইড ও কিমবার্লির অর্থায়নে প্রায় ৫৩ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত আধুনিক টয়লেট দু’টিতে নিরাপত্তার জন্য সিসি ক্যামেরা ও লকার রুম ছাড়াও ৫ টাকার বিনিময়ে টয়লেট, ১০ টাকার বিনিময়ে গোসল, ৫ টাকার বিনিময়ে লকার রুম ব্যবহার এবং ১ টাকার বিনিময়ে সুপেয় পানি পান করার সুবিধা রয়েছে। এতে প্রতিবন্ধীদের হুইল চেয়ারে টয়লেট ব্যবহার এবং মহিলাদের জন্য নিরাপদ ব্যবস্থা রয়েছে। ওয়াটার এইড ও কিমবার্লির অর্থায়নে আরো একটি টয়লেট নির্মাণাধীন এবং জায়গা প্রাপ্তি সাপেক্ষে আরো সাতটি আধুনিক টয়লেট নির্মাণ করে দেয়ার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে।

এ সময় স্থানীয় কাউন্সিলর জহর লাল হাজারী, কাউন্সিলর মো: গিয়াস উদ্দিন, শৈবাল দাশ সুমন, সাহেদ ইকবাল বাবু, তৌফিক আহম্মদ চৌধুরী, মিসেস আঞ্জুমান আরা বেগম, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো: আবুল হোসেন, সিডিএর চিফ টাউন প্ল্যানার শাহিনুল ইসলাম, ওয়াটার এইডের কান্ট্রি ডিরেক্টর খায়রুল ইসলাম, ডিএসকের যুগ্ম পরিচালক আবদুল হাকিম ও জনসংযোগ কর্মকর্তা মো: আবদুর রহিমসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য করুন

comments