প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে বদলে গেছে চট্টগ্রামের চেহারা

50
শেয়ার

প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে কর্ণফুলীর পাড়ঘেঁষে শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর সড়কের চেহারাই বদলে গেছে। আলোচিত সেই তিন সেতুকে ঘিরে ব্যাপক সৌন্দর্যবর্ধনের কাজ চলছে। সেতুর ওপর এলইডি লাইটিং মুগ্ধ করছে দেশ-বিদেশের অতিথিদের। সড়ক বিভাজকে থোকা সবুজ, রকমারি ফুল। ফুটপাতের পাশেও বাহারি ফুলের মেলা।

বিমানবন্দর সড়কের সেতুটি সাজানো হয়েছে বর্ণিল এলইডি লাইটে।রুবি সিমেন্টের পাশের সেতুটিতে এলইডি লাইটিংয়ের কাজ হয়েছে। বিমানবন্দর সংলগ্ন ১৫ নম্বর ও ৭ নম্বর সেতুর এলইডি লাইটিং সামগ্রী এসে পৌঁছেছে।

বিমানবন্দর সড়কের দুই পাশে এবং সড়ক বিভাজকেও চলছে সবুজায়নের কাজ।

প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বিমানবন্দর সড়কের ড্রাইডক এলাকায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার নিজের প্রতিচ্ছবি ম্যুরাল স্থাপন করেছেন।

‘ওয়েলকাম টু চিটাগং’ম্যুরালটি শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দিয়ে আসা দেশ-বিদেশের অতিথিদের স্বাগত জানাবে ।

যাতে রয়েছে একটি নৌকার ওপর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও নগর পিতা আ জ ম নাছির উদ্দীনের তিনটি টাইলস ম্যুরাল। শিল্পী শ্রীকান্ত আচার্য্য ৩০ বর্গফুটের প্রতিটি ম্যুরাল তৈরি করেছেন।

জামালখানের সেন্ট মেরি’স স্কুলের দেয়ালে শিল্পী শ্রীকান্ত আচার্যের তৈরি করা ২০ বরেণ্য বাঙালির টাইলস ম্যুরাল বেশ প্রশংসিত হয়েছে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম, ভাষাবিদ ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ, কবি জীবনানন্দ দাশ, মাইকেল মধুসূদন দত্ত, ফকির লালন শাহ, মাস্টারদা সূর্য সেন, বীরকন্যা প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদার, মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী, শেরে বাংলা একে ফজলুল হক, হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী, ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর, অতীশ দীপঙ্কর, শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিন, পল্লিকবি জসীম উদদীন, বেগম রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেন, কবি সুফিয়া কামাল, কবি শামসুর রাহমান ও ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ আবদুল খালেকের ম্যুরালগুলো মানুষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছে অনেক। কোমলমতি শিশু-কিশোর, অভিভাবক, পথচারী থেকে শুরু করে যানজটে আটকা পড়া মানুষ পড়ছেন মনীষীদের নির্বাচিত উদ্ধৃতিগুলো।

মন্তব্য করুন

comments