‘নগর হবে মাদকমুক্ত’-মেয়র নাছির

42
শেয়ার

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, সকল রাজনৈতিক দল, নানা শ্রেণী ও পেশার নাগরিকদের সহযোগিতায় ৪১ টি ওয়ার্ডকে সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও মাদকমুক্ত করা হবে। এ লক্ষ্যে যে কোন ঝুঁকি কাঁধে নিয়ে প্রতিটি ওয়ার্ডে জনমত গঠন ও অভিযান পরিচালিত হবে। পুলিশ জনতার ঐক্যবদ্ধ ও আন্তরিক প্রয়াসের নিকট সন্ত্রাস জঙ্গিবাদ ও মাদক ব্যবহারকারীরা পরাজয় স্বীকার করতে বাধ্য হবে।

তিনি সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদে জড়িতদেরসহ মাদকসেবী ও বিক্রেতাদের সামাজিকভাবে বয়কট করে তাদেরকে এ ধরনের অপতৎপরতা থেকে নিভৃত করতে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। সে লক্ষ্যে নগরীর প্রতিটি ওয়ার্ডে সকল রাজনৈতিক দল, সামাজিক ও পেশাজীবী সংগঠনের প্রতিনিধিদের সমন্বয়ে কমিটি গঠনেরও ঘোষণা দেন মেয়র।

আ জ ম নাছির উদ্দীন সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও মাদকমুক্ত নগরী গড়ার লক্ষ্যে গণমাধ্যমের আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেন।

গতকাল মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) সকালে নগরীর ১৯ নম্বর দক্ষিণ বাকলিয়া ওয়ার্ড কার্যালয়ে সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও মাদকবিরোধী সমাবেশে প্রধান অতিথির ভাষণে মেয়র এসব সিদ্ধান্তের কথা বলেন।

সভায় দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম নগরীতে আর ডাস্টবিন চোখে দেখা যাবে না বলে মন্তব্য করেন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

তিনি বলেন, নগরীর ৪১ ওয়ার্ডে সড়কের পাশে যেসব ডাস্টবিন আছে সেগুলো পর্যায়ক্রমে তুলে ফেলা হচ্ছে। ইতিমধ্যে ১৩৭৫টি কংক্রিট ডাস্টবিনের মধ্যে ৭৭৫টি অপসারণ করে ওই জায়গায় ফুলের বাগান করা হয়েছে। ১৭১৪ জন সেবক নিয়োগ দেওয়া হয়েছে প্রতিটি বাসা-বাড়ি, দোকান ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান থেকে বর্জ্য সংগ্রহের জন্য। দুর্গন্ধ ও যানজট থেকে মুক্তির জন্য দিনের পরিবর্তে রাতে বর্জ্য অপসারণ করা হচ্ছে। ৯ লাখ ছোট ও ৪ লাখ বড় বিন বিনামূল্যে বিতরণ করা হয়েছে। ৭৭৫টি ভ্যানগাড়ির সাহায্যে ডোর টু ডোর পদ্ধতিতে বর্জ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন ১৯ নম্বর দক্ষিণ বাকলিয়া ওয়ার্ড কাউন্সিলর ইয়াছিন চৌধুরী আশু। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন সিটি করপোরেশনের আইন শৃংখলা বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভাপতি কাউন্সিলর এইচ এম সোহেল, ১৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর এ কে এম জাফরুল ইসলাম, সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর মিসেস ফারজানা পারভীন, স্পেশাল ম্যাজিস্ট্রেট যুগ্ম জেলা জজ মিসেস জাহানারা ফেরদৌস, মহেষখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা প্রদীপ চন্দ্র দাশ, বাকলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা প্রণব চৌধুরী। সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও মাদকবিরোধী সমাবেশে মতামত ব্যক্ত করেন স্থানীয় আওয়ামী লীগের সিদ্দিক আলম, নুরুল আজিম নুরু, লুৎফুর রহমান ফারুক, ফয়েজুল্লাহ বাহাদুর, গোলাম রব্বানী মনি, স্থানীয় সমাজসেবক মো. হারুন, এইচ এম সেলিম, সহিদুল আজম বাবুল, কামাল উদ্দিন বাদলসহ নানা শ্রেণী ও পেশার প্রতিনিধিবৃন্দ।

মন্তব্য করুন

comments