আদালতে হত্যা মামলার আসামির আত্মহত্যার চেষ্টা

42
শেয়ার

হত্যা মামলায় দায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেওয়ার পর আদালতে নিজের পেটে ছুরিকাঘাত করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে এক আসামি। আব্দুল মালেক জনি (২২) নামে ওই আসামির অবস্থা অবশ্য আশঙ্কামুক্ত বলে জানিয়েছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (০১ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে বাঁশখালীতে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এই ঘটনা ঘটেছে।

বাঁশখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.সালাহউদ্দিন জানান, গত ১ ডিসেম্বর বাঁশখালীতে যুবলীগ কর্মী মোস্তফা দিদার হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত এক নম্বর আসামি আব্দুল মালেক জনি। ওই মামলায় গ্রেফতারের পর তাকে আদালতের নির্দেশে তিনদিনের রিমান্ডে নেয় পুলিশ।

রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বৃহস্পতিবার তাকে আদালতে হাজির করা হয়। আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেওয়ার পর তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন ম্যাজিস্ট্রেট।

কারা কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তরের জন্য আব্দুল মালেককে সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তার (জিআরও) কক্ষে নেওয়া হয়। এসময় জিআরও’র টেবিলে রাখা কাগজ কাটার চাকু দিয়ে নিজের পেটে আঘাত করেন মালেক।

আহত অবস্থায় তাকে দ্রুত বাঁশখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখান থেকে কারা কর্তৃপক্ষের হেফাজতে তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন ওসি।

এদিকে আত্মহত্যার চেষ্টার অভিযোগে দণ্ডবিধির ৩০৯ ধারায় আব্দুল মালেক জনির বিরুদ্ধে উপ পুলিশ পরিদর্শক (এসআই) লিটন চাকমা বাদি হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

মন্তব্য করুন

comments