খুলশীতে ১০ দিনে আড়াই একর পাহাড় কেটে সাফ

240
শেয়ার

চট্টগ্রামের খুলশী থানাধীন জালালাবাদ হাউজিং সোসাইটি ও কৃষ্ণচূড়া আবাসিক এলাকার উত্তর পাশে অবৈধভাবে পাহাড় কাটার সময় তিনটি এক্সাভেটর জব্দ করেছে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল রোববার বিকেলে জেলা প্রশাসক জিল্লুর রহমান চৌধুরী এ অভিযানের নেতৃত্ব দেন। এ সময় পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিচালক মো. আলতাফ হোসেন চৌধুরী, র‌্যাব-৭-এর লে. কমান্ডার মো. আশেক, পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক খন্দকার মো. তাহাজ্জুত আলীসহ অন্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।তবে এ সময় পাহাড় কাটার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিরা পালিয়ে যান।

নগরীর খুলশী থানার জালালাবাদ হাউজিংয়ের পাশে প্রায় ৫ দশমিক ৪৩ একর পাহাড়ের প্রায় আড়াই একর পাহাড় রাতের আঁধারে কেটে ফেলা হয়েছে। প্রতিদিন রাতে এক্সাভেটরের মাধ্যমে পাহাড় কাটার পর এসব যন্ত্রপাতি লুকিয়ে রাখা হতো। লোহাগাড়া হাউজিং সোসাইটির নামে এই পাহাড় কাটা হয়।ওই সোসাইটির সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান নামের এক ব্যক্তি।পাহাড়ের প্রবেশমুখে একটি মসজিদের ব্যানার দিয়ে স্থানীয় লোকজনকে ধর্মীয় অনুভূতি প্রচার করেছেন লোহাগাড়া হাউজিং প্রকল্পের পরিচালকরা।

জেলা প্রশাসক বলছেন, রাতে পাহাড় কেটে তারা হাউজিং প্রকল্পের উদ্যোগ নিয়েছে। এর আগে জেলা প্রশাসনের লোকজন ঘটনাস্থলে গেলে ভাড়াটে লোকজন তাদের মোবাইল ফোনসহ মূল্যবান জিনিস নিয়ে যায় বলে জানান জেলা প্রশাসক জিল্লুর রহমান চৌধুরী।

জেলা প্রশাসক জানান, পাহাড় কাটার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হবে। কোনো ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান কোনোভাবে পাহাড় কাটতে পারবে না।

মন্তব্য করুন

comments