১৫ দিনের মধ্যে সড়ক মেরামতের জন্য মেয়র নাছিরের নির্দেশ

62
শেয়ার

বৃষ্টিতে ক্ষতিগ্রস্ত চট্টগ্রাম নগরীর সড়কগুলো দ্রুততম সময়ের মধ্যে সংস্কারের নির্দেশ দিয়েছেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। এ লক্ষ্যে দরপত্রসহ প্রয়োজনীয় সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করাসহ ক্ষতিগ্রস্ত রাস্তাসমূহের টেন্ডার প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার নির্দেশও দিয়েছেন।

মেয়র বলেন, ‘আগামী ১৫ দিনের মধ্যে সকল সড়কে সৃষ্ট গর্ত ও খানা-খন্দকের চলমান সংস্কার কার্যক্রম সম্পন্ন করতে হবে। সংস্কার প্রকল্পের জন্য দ্রুত টেন্ডার প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে বাস্তবায়ন শুরু করতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘সাধারণ জনগণ যেকোন ভোগান্তির জন্য সিটি কর্পোরেশনকে দায়ী করে থাকে।’ ভাঙা সড়কের মেরামতে প্রকল্প কাজের ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট প্রোফর্মা (ডিপিপি) তৈরি করার ক্ষেত্রে দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রকৌশলীদের দীর্ঘসূত্রতায় চরম অসন্তোষ প্রকাশ করেন। সোমবার দুপুরে কর্পোরেশনের প্রকৌশল বিভাগের ১৬তম সমন্বয় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ নির্দেশনা প্রদান করেন।

জুন মাসের শুরুর দিকে ভারী বৃষ্টিপাতের পর লণ্ডভণ্ড হওয়া চট্টগ্রাম নগরীর সড়কগুলো এখনো পরিপূর্ণ মেরামত করা সম্ভব হয়নি। খানাখন্দে ভরা সড়কগুলো আগের অবস্থাতেই রয়ে গেছে। কোথাও কোথাও এসব সড়কের অবস্থার আরো অবনতি হয়েছে।

ভারী বৃষ্টিপাতের সময় আগ্রাবাদ এক্সেস রোড, নিমতলা পোর্ট কানেকটিং রোড, ফিরিঙ্গিবাজারের মেরিনার্স রোর্ড, কাপাসগোলা রোড, সিডিএ অ্যাভেনিউর বিভিন্ন এলাকার সড়কে বড় আকারের গর্ত দেখা দেয়। এগুলোর মধ্যে কোনো কোনো সড়ক বৃষ্টির পানিতে কয়েকদিন তলিয়ে ছিল। এবার বিভিন্ন সরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত সংস্থার খোঁড়াখুঁড়ির কারণেও কিছু সড়কে গর্ত সৃষ্টি হয়েছে। তাই, নাগরিকদের সেবা দিতে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (চউক), ওয়াসা, গ্যাস, টিএ্যান্ডটিসহ সেবা সংস্থাগুলোকে সমন্বিতভাবে ভূমিকা পালনের ব্যপারে জোর দেন চসিক মেয়র।

এদিকে সংস্কার কাজ নিয়ে অনেককে প্রশ্ন তুলতে দেখা গেছে। বিভিন্ন এলাকায় যাচ্ছেতাই করে সংস্কার কাজ করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন অনেকে। ফলে সংস্কারের কিছুদিনের মাথায় এসব সড়কের অবস্থা আগের মতো হয়ে যায় বলে দাবি করেছেন তারা।

মন্তব্য করুন

comments