X

যুবলীগ নেতার পায়ে গুলি, আ. লীগ নেতা আটক

মদ্যপ অবস্থায় যুবলীগের এক নেতাকে গুলি করায় আওয়ামী লীগ নেতা মঞ্জুরুল আলমকে আটক করেছে পুলিশ। মঞ্জুরুল আলম চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও আলোচিত পরিবহন নেতা।

বন্দরনগরীর এমএ আজিজ স্টেডিয়াম সংলগ্ন অফিসার্স ক্লাবে শনিবার রাতে ওই গুলির ঘটনা ঘটে বলে কোতোয়ালি থানার ওসি জসীম উদ্দিন জানান।

চট্টগ্রাম জেলা সড়ক পরিবহন মালিক গ্রুপের সভাপতি মঞ্জু ঠিকাদারি ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। এক সময় তিনি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। যুবলীগের কেন্দ্রীয় সদস্য হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন।

শনিবার (২১ অক্টোবর) গভীর রাত ১২ টার দিকে নগরীর আউটার স্টেডিয়াম সংলগ্ন অফিসার্স ক্লাবের সামনে থেকে তাকে আটক করা হয়েছে। কোতয়ালী থানার ওসি জসিম উদ্দিন জানান, রাতে দু’জনই অফিসার্স ক্লাবে ছিলেন। সেখান থেকে বের হবার পর উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এর এক পর্যায়ে মঞ্জুরুল আলম পিস্তল বের করে জয়নালের পায়ে গুলি করে। এসময় পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মঞ্জুরুলকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

আহত জয়নালকে রাতে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। অস্ত্রোপচার করে গুলি বের করা হয়েছে। আনোয়ারা উপজেলার বাসিন্দা জয়নাল দক্ষিণ জেলা যুবলীগ নেতা। তার ভাই মো. আলমগীর আনোয়ারা থেকে নির্বাচিত চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের সদস্য।

ওসি বলেন, ওই পিস্তলের লাইসেন্স রয়েছে বলে মঞ্জু তাদের জানিয়েছেন।

তবে কী নিয়ে জয়নালের সঙ্গে মঞ্জুর বিরোধ তৈরি হয়েছিল, সে বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেননি এই পুলিশ কর্মকর্তা।

গুলির ঘটনায় রোববার বেলা ১২টা পর্যন্ত থানায় কোনো মামলা হয়নি।

জয়নালের ভাই মামলা দায়ের করবেন বলে জানিয়েছেন ওসি।

মন্তব্য করুন

comments