বর্ধিত গৃহকর প্রত্যাহারে আন্দোলনের হুমকি করদাতা সুরক্ষা পরিষদের

56
শেয়ার
ফাইল ছবি

চট্টগ্রাম নগরীতে অবিলম্বে বর্ধিত হোল্ডিং ট্যাক্স বাতিল না করলে কঠোর আন্দোলন কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে করদাতা সুরক্ষা পরিষদ।

শুক্রবার বিকালে নগরীর আগ্রাবাদ এলাকায় সিঙ্গাপুর-ব্যাংকক মার্কেটের সামনে অনুষ্ঠিত সমাবেশ থেকে এ ঘোষণা দেয় তারা।

সমাবেশে করদাতা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক মুহাম্মদ আমির উদ্দিন বলেন, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন অস্বাভাবিক হারে মূল্যায়ন করা হোল্ডিং ট্যাক্স আদায়ের প্রক্রিয়া অবিলম্বে বাতিল করতে হবে।

“সিটি করপোরেশন যদি এই অবৈধ গৃহকর বাতিল করার উদ্যোগ গ্রহণ না করে, তাহলে আগামী আন্দোলনের কর্মসূচি কঠোর থেকে কঠোরতম হবে।”

সভায় আমির উদ্দিন বলেন, “কর নির্ধারণের প্রচলিত পদ্ধতি (আয়তনের ভিত্তিতে) বাদ দিয়ে বাড়ি ভাড়ার উপর কর নির্ধারণ করায় গৃহকর অসহনীয় পর্যায়ে বৃদ্ধি পেয়েছে। যা পরিশোধের ক্ষমতা মধ্যবিত্ত বা নিম্ব মধ্যবিত্তের নেই।”
এদিকে গত বুধবার সংবাদ সম্মেলন করে সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন জানিয়ে দেন, বর্ধিত গৃহকর বিষয়ে নগরবাসী অভিযোগের সুরাহা করতে আপিল ছাড়া আর কোনো বিকল্প নেই।

মেয়র আরও জানান, ভাড়ার ভিত্তিতে ছাড়া অন্য কোনো পদ্ধতিতে গৃহকর নির্ধারণের ক্ষমতা তার নেই।

শুক্রবারের সমাবেশে মুহাম্মদ আমির উদ্দিন বলেন, “মেয়র সাংবাদিক সম্মেলনে আপিলের মাধ্যমে সর্বোচ্চ ছাড়ের যে কথা বলেছেন, তা নগরবাসীর সাথে ধাপ্পাবাজি।

“আপিলের মাধ্যমে মানুষকে হয়রানি ও সম্মানহানির ব্যবস্থা না করে অচিরেই বর্ধিত হোল্ডিং ট্যাক্স বাতিল ঘোষণা করে পূর্বের মেয়রদের মত গৃহকর আদায় করুন।”

সভায় গৃহকর নিয়ে রচিত দুটি গণসঙ্গীত পরিবেশন করেন শিল্পী মো. মুনিরু উল্যাহ কাদের।

সভাশেষে বাড়ির মালিক ও নগরীর বিভিন্ন পাড়া-মহল্লার সাধারণ বাসিন্দাদের অংশগ্রহণে একটি মিছিল আগ্রাবাদ এলাকা থেকে শুরু হয়ে দেওয়ানহাট এলাকায় গিয়ে শেষ হয়।
পরিষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাসান মারুফ রুমীর সঞ্চালনায় সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন পরিষদের সভাপতি নুরুল আবসার।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন পরিষদের সহ-সভাপতি মজিবুল হক চুন্নু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাবেক কাউন্সিলর জান্নাতুল ফেরদৌস পপি, সাবেক ওয়ার্ড কাউন্সিলর এম এ মালেক, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ারুল করিম, মো. নাহিদ, মাহবুবুর রহমান, সাইফুল ইসলাম মানিক, হাজী ইমরান প্রমুখ।

করদাতা সুরক্ষা পরিষদের চলমান কর্মসূচির অংশ হিসেবে শনিবার জালালাবাদ ওয়ার্ডে, রোববার দোস্ত বিল্ডিং চত্বরে, বুধবার অলংকার মোড়ে এবং বৃহস্পতিবার বাকলিয়া ওয়ার্ডে কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দেওয়া হয় শুক্রবারের সভা থেকে।

এর আগে পরিষদের বিভিন্ন কর্মসূচি থেকে ধারাবাহিকভাবে ওয়ার্ড কার্যালয়ে অবস্থান কর্মসূচি শেষে নগর ভবন ঘেরাওয়ের হুমকিও দেওয়া হয়।

গত বছর মার্চে গৃহকর পুনর্মূল্যায়ন শুরুর পর থেকেই এর বিরুদ্ধে আন্দোলন করছে করদাতা সুরক্ষা পরিষদ।

ইতোমধ্যে সাবেক দুই মেয়র এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরী ও মনজুর আলম, সাবেক ২৩ ওয়ার্ড কাউন্সিলর, নগর আওয়ামী লীগ, বিএনপি, ১৪ দল, ইসলামী ফ্রন্ট, জাসদ, গণ অধিকার ফোরামসহ বেশ কিছু রাজনৈতিক সংগঠন বর্ধিত গৃহকরের বিরুদ্ধে অবস্থান জানিয়েছে।

সবশেষ বুধবার সংবাদ সম্মেলন থেকে মেয়র আ জ ম নাছির বর্ধিত গৃহকর আদায়ে অনড় অবস্থানের ঘোষণা দেন।

এরপর তাদের আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেয় করদাতা সুরক্ষা পরিষদ। অন্যদিকে নগর আওয়ামী লীগ সভাপতি মহিউদ্দিন চৌধুরী প্রয়োজনে সিটি করপোরেশনের বিরুদ্ধে ‘অসহযোগ’ (নন-কোঅপারেশন) আন্দোলনের ডাক দেওয়া হবে বলে স্থানীয় গণমাধ্যমকে জানান।

মন্তব্য করুন

comments