ফটিকছড়িতে গলায় ফাঁস লাগিয়ে নববধুর আত্মহত্যা

37
শেয়ার

চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলার লেলাং ইউনিয়নের রায়পুর গ্রামে গলায় ফাঁস দিয়ে তানজিনা আক্তার (১৮) নামের এক নববধুর আত্মহত্যার করেছে। তিনি লেলাং ইউনিউনের রায়পুর গ্রামের মুরাদ হাসানের স্ত্রী।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, রায়পুর গ্রামের মুজাফফর বাড়ীর জনৈক ওমান প্রবাসী মুরাদ হাসানের স্ত্রী তানজিনা আকতার ২০ অক্টোবর (শুক্রবার) সকাল ১০ টায় নাস্তা খেয়ে ঘুমানোর কথা বলে নিজের শয়ন কক্ষে প্রবেশ করে ভেতর থেকে দরজা বন্ধ করে দেয়। বেশ কিছুক্ষন পর তানজিনার শ্বাশুড়ি তাকে ডাকতে গেলে কোন সাড়া শব্দ না পেয়ে শয়ন কক্ষের বাইরের জানলা দিয়ে ফ্যানের সাথে রশিতে তার ঝুলান্ত দেহ দেখতে পায়। পরে খবর পেয়ে ফটিকছড়ি থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে শয়ন কক্ষের দরজা ভেঙ্গে মরদেহটি উদ্ধার করেন।

ফটিকছড়ি থানার উপ-পরিদর্শক (এস.আই) মাহবুব বলেন, ‘খবর পেয়ে আমরা দ্রুত ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। পরে, দরজার খিল ভেঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থা থেকে লাশ উদ্ধার করি।’

স্থানীয় ইউ.পি সদস্য হানিফ জানান, ‘মেয়েটি দীর্ঘদিন ধরে মানসিকভাবে অসুস্থ ছিল। মানসিক যন্ত্রণা থেকে আত্মহত্যা করে থাকতে পারে।’

ফটিকছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ও.সি) আবু ইউছুফ মিয়া জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। পরিবারের পক্ষ থেকে কোন অভিযোগ না থাকায় সাধারণ অপমৃত্যু মামলা রুজু করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২৯ জুলাই মুরাদের সাথে সামাজিকভাবে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয় তানজিনা আক্তার। বিয়ের মাত্র আড়াই মাসের মাথায় গলায় ফাঁস লাগিয় আত্মহত্যা করেন তিনি।

মন্তব্য করুন

comments